MindEye

MindEye everything will be coming soon..

Operating as usual

03/22/2021

আমি প্রতিশোধ নেই না 😕গুরত্ব কমিয়ে দূরত্ব বারিয়ে দেই 😊।😈No Skills❤️Only Skins..

03/17/2021

এই যানজটের শহরে কার খবর কে রাখে, মন ভাঙলে সবাই একা থাকে।😈No Skills❤️Only Skins😰

বিচারকের দন্ডঃ যে রায়টি আপনাকে আবেগতাড়িত না করে পারবে না...................................................................
03/16/2021

বিচারকের দন্ডঃ
যে রায়টি আপনাকে আবেগতাড়িত না করে পারবে না
.............................................................................
আমেরিকায় পনেরো বছরের একটি বালক দোকান থেকে চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়লো। প্রহরীর হাত থেকে পালানোর চেষ্টা করার সময় একটা শেলফ্ গেলো ভেঙ্গে।
বিচারক অপরাধের কাহিনী শুনে বালকটিকে জিজ্ঞাসা করলেন - "তুই কি সত‍্যিই কিছু চুরি করেছিলি? রুটি-চিজের কোনো প‍্যাকেট?"
মাথা নিচু করে ছেলেটি উত্তর দিলো - "হ‍্যাঁ"।
বিচারক - কেন চুরি করলি?
বালক - আমার প্রয়োজন ছিল।
বিচারক - কিনে নিতে পারতি।
বালক - টাকা ছিল না।
বিচারক - পরিবার থেকে নিলেই হতো।
বালক - আমার বাড়িতে শুধু মা আছেন। মা অসুস্থ, কর্মহীন। মায়ের জন‍্যই রুটি চিজ চুরি করেছিলাম।
বিচারক - তুই কোনো কাজ করিস না?
বালক - গাড়ি ধোওয়ার কাজ করতাম। মাকে সেবা করার জন‍্য একদিন ছুটি নিয়েছিলাম। তাই আমার কাজ চলে গেলো।
বিচারক - কারও কাছে সাহায্য চাস নি?
বালক - সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়েছি। একটা কাজের জন‍্য প্রায় পঞ্চাশ জনের কাছে গিয়েছি। সবশেষে এই চূড়ান্ত পথটাই নিতে হলো।

ছেলেটির সাথে কথাবার্তার শেষে বিচারক রায় ঘোষণা করতে গিয়ে বললেন - "চুরি, বিশেষ করে রুটি চুরি একটি অত‍্যন্ত লজ্জাজনক অপরাধ। আর এই অপরাধের জন‍্য আমরা সবাই দায়ী। এই আদালতে উপস্থিত প্রত‍্যেকে, আপনাদের মধ‍্যে আমিও আছি, এই অপরাধের সাথে যুক্ত। তাই এখানে উপস্থিত প্রত‍্যেক ব‍্যক্তিকে দশ ডলার করে জরিমানা করা হলো। দশ ডলার এখানে জমা না দিয়ে কেউ এখান থেকে যেতে পারবে না।"
এই বলে বিচারক তার পকেট থেকে দশ ডলার বের করলেন এবং কলম তুলে নিয়ে লিখতে শুরু করলেন - এ ছাড়াও যে দোকান ক্ষুধার্ত ছেলেটিকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে সেই দোকানকেও আমি এক হাজার ডলার জরিমানা দিতে আদেশ করছি।
জরিমানার টাকা যদি চব্বিশ ঘণ্টার মধ‍্যে জমা দেওয়া না হয়, আদালত দোকানটিকে সিল করে দিতে নির্দেশ দেবে।
জরিমানার সমস্ত টাকা এই ছেলেটির হাতে তুলে দিয়ে আদালত তার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করবে।

বিচারকের রায় শোনার পর আদালতে উপস্থিত সকলের চোখভরা জল‌। ছেলেটিও একেবারে বাকরুদ্ধ। বিচারককে সে বারবার দেখছিলো। চোখের জল লুকিয়ে বিচারক আদালত ত‍্যাগ করলেন।

আমাদের সমাজ, প্রশাসনিক ব‍্যবস্থা, আদালত এমন সিদ্ধান্ত নিতে কি প্রস্তুত?
চাণক্য বলেছেন - রুটি চুরি করতে গিয়ে যদি কোনো ব‍্যক্তি ধরা পড়ে, সেই দেশের জনগণের লজ্জিত হওয়া উচিত।
এমন বিচারক কবে আসবে আমার মাতৃভূমি বাংলাদেশে ?
(কৃতজ্ঞতা ভাই Mohammad Abdul Awal Abdullah)

বিচারকের দন্ডঃ
যে রায়টি আপনাকে আবেগতাড়িত না করে পারবে না
.............................................................................
আমেরিকায় পনেরো বছরের একটি বালক দোকান থেকে চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়লো। প্রহরীর হাত থেকে পালানোর চেষ্টা করার সময় একটা শেলফ্ গেলো ভেঙ্গে।
বিচারক অপরাধের কাহিনী শুনে বালকটিকে জিজ্ঞাসা করলেন - "তুই কি সত‍্যিই কিছু চুরি করেছিলি? রুটি-চিজের কোনো প‍্যাকেট?"
মাথা নিচু করে ছেলেটি উত্তর দিলো - "হ‍্যাঁ"।
বিচারক - কেন চুরি করলি?
বালক - আমার প্রয়োজন ছিল।
বিচারক - কিনে নিতে পারতি।
বালক - টাকা ছিল না।
বিচারক - পরিবার থেকে নিলেই হতো।
বালক - আমার বাড়িতে শুধু মা আছেন। মা অসুস্থ, কর্মহীন। মায়ের জন‍্যই রুটি চিজ চুরি করেছিলাম।
বিচারক - তুই কোনো কাজ করিস না?
বালক - গাড়ি ধোওয়ার কাজ করতাম। মাকে সেবা করার জন‍্য একদিন ছুটি নিয়েছিলাম। তাই আমার কাজ চলে গেলো।
বিচারক - কারও কাছে সাহায্য চাস নি?
বালক - সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়েছি। একটা কাজের জন‍্য প্রায় পঞ্চাশ জনের কাছে গিয়েছি। সবশেষে এই চূড়ান্ত পথটাই নিতে হলো।

ছেলেটির সাথে কথাবার্তার শেষে বিচারক রায় ঘোষণা করতে গিয়ে বললেন - "চুরি, বিশেষ করে রুটি চুরি একটি অত‍্যন্ত লজ্জাজনক অপরাধ। আর এই অপরাধের জন‍্য আমরা সবাই দায়ী। এই আদালতে উপস্থিত প্রত‍্যেকে, আপনাদের মধ‍্যে আমিও আছি, এই অপরাধের সাথে যুক্ত। তাই এখানে উপস্থিত প্রত‍্যেক ব‍্যক্তিকে দশ ডলার করে জরিমানা করা হলো। দশ ডলার এখানে জমা না দিয়ে কেউ এখান থেকে যেতে পারবে না।"
এই বলে বিচারক তার পকেট থেকে দশ ডলার বের করলেন এবং কলম তুলে নিয়ে লিখতে শুরু করলেন - এ ছাড়াও যে দোকান ক্ষুধার্ত ছেলেটিকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে সেই দোকানকেও আমি এক হাজার ডলার জরিমানা দিতে আদেশ করছি।
জরিমানার টাকা যদি চব্বিশ ঘণ্টার মধ‍্যে জমা দেওয়া না হয়, আদালত দোকানটিকে সিল করে দিতে নির্দেশ দেবে।
জরিমানার সমস্ত টাকা এই ছেলেটির হাতে তুলে দিয়ে আদালত তার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করবে।

বিচারকের রায় শোনার পর আদালতে উপস্থিত সকলের চোখভরা জল‌। ছেলেটিও একেবারে বাকরুদ্ধ। বিচারককে সে বারবার দেখছিলো। চোখের জল লুকিয়ে বিচারক আদালত ত‍্যাগ করলেন।

আমাদের সমাজ, প্রশাসনিক ব‍্যবস্থা, আদালত এমন সিদ্ধান্ত নিতে কি প্রস্তুত?
চাণক্য বলেছেন - রুটি চুরি করতে গিয়ে যদি কোনো ব‍্যক্তি ধরা পড়ে, সেই দেশের জনগণের লজ্জিত হওয়া উচিত।
এমন বিচারক কবে আসবে আমার মাতৃভূমি বাংলাদেশে ?
(কৃতজ্ঞতা ভাই Mohammad Abdul Awal Abdullah)

03/13/2021

ভিতরে ভিতরে আমরা সবাই পাপী👿কিন্তু অন্যের পাপ দেখলে আমরা পাল্লা দিয়ে মাপি💔No Skills❤️Only Skins

03/11/2021

যে আসে নি ভালোবাসার টানে.!😭সে আসবে না আগরবাতির ঘ্রাণে.!🌿🙂😢No Skills❤️Only Skins.

03/09/2021

আকাশ ভরা তারা New updates a Glitch a Vora 😛..!😢No Skills❤️Only Skins🤣🤣

03/07/2021

সপ্নেরা উকি মারে..বটেরা নড়ে চড়ে, মাইন্ড আই লাইভে বাল ফেলে..!😢No Skills❤️Only Skins

03/03/2021

| No Skills, Only Skins |
এনিমি যদি হইতি আমার 🙂আমি হইতাম তোর ❤️

03/01/2021

| No Skills, Only Skins |
এনিমি যদি হইতি আমার 🙂আমি হইতাম তোর ❤️উরাধুরা মাইরা তোরে 😁চিকেন নিতাম মোর😅😅

02/26/2021

| No Skills, Only Skins |
Bhai GG lagaia o live e jodi keu khele Bangladesh e tao legit only Ami khelle ota hack..by Max Meton

02/24/2021

| No Skills, Only Skins |
নেই কোনো কাজ 🤒মুখে শুধু হাসি😁চাঁদে যেয়ে লিখে দিব✍️পাবজি তোমায় বড় ভালোবাসি❤️❤️

02/23/2021

| No Skills, Only Skins |
হ্যাপি PMCO ডে..I LOVE THE WAY #MAXESPORTS PLAYS😂🤣। সাপোর্ট বাংলাদেশি স্ট্রিমার।

02/21/2021

| No Skills, Only Skins |
হ্যাপি PMCO ডে..I LOVE THE WAY #MAXESPORTS PLAYS😂🤣। সাপোর্ট বাংলাদেশি স্ট্রিমার।

02/20/2021

| No Skills, Only Skins |
হ্যাপি PMCO ডে..I LOVE THE WAY #MAXESPORTS PLAYS😂🤣। সাপোর্ট বাংলাদেশি স্ট্রিমার।

02/19/2021

| No Skills, Only Skins |
হ্যাপি PMCO ডে..কার কার এন্টেনা ঠিক মত কাজ করেছে..?😂🤣। সাপোর্ট বাংলাদেশি স্ট্রিমার।

#বিচারের বাণী নীরবে নিভৃতে কাঁদে!--------------------------------------------------বখাটেদের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে ...
11/08/2020

#বিচারের বাণী নীরবে নিভৃতে কাঁদে!
--------------------------------------------------
বখাটেদের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার বারবাড়ীয়া ইউনিয়নের পাকাটি গ্রামের কৃষক তাফাজ্জল হোসেনের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়ে তানিয়া (১৭) পঙ্গু হয়ে প্রায় দু'মাস ধরে বিছানায় পড়ে আছে। গত ১৯-০৯-২০২০ ইং তারিখে অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতে ব্যর্থ হয়ে তানিয়ার উপর নির্মম নির্যাতন চালায় চার বখাটে। বখাটেরা হলো- উপজেলার বারবাড়ীয়া গ্রামের হেলাল উদ্দিন ওরফে হেলির ছেলে সোহাগ, চিলাকান্দা গ্রামের মকবুল মিলিটারির ছেলে বিপ্লব, আব্দুল মতিনের ছেলে নাজমুল এবং আজিজুল হকের ছেলে বাবু মিয়া। এসময় তারা লোহার রড দিয়ে তানিয়াকে পিটিয়ে তার বাম পা ভেঙ্গে দেয় এবং সারা শরীর রক্তাক্ত জখম করে। পরে তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে পরবর্তীতে প্রাইভেট হাসপাতালে প্রায় দেড় মাস চিকিৎসা করানো হয়। বর্তমানে পায়ে ইনফেকশন হওয়ায় তার বাম পা কেটে ফেলতে হতে পারে বলছে চিকিৎসকরা। এদিকে মেয়ের চিকিৎসায় হতদরিদ্র বাবা কয়েক লাখ টাকা খরচ করে নিঃস্ব হয়ে গেছেন। চিকিৎসার ব্যয়ভার এখন আর তার পক্ষে বহন করা সম্ভব হচ্ছে না। টাকার অভাবে হাসপাতাল থেকে মেয়েকে বাড়ীতে নিয়ে এসে এখন বিছানায় পঙ্গু মেয়ের পাশে বসে শুধু হাউমাউ করে কাঁদছে বাবা-মা। এই ঘটনায় গফরগাঁও থানায় ওই চার বখাটের নামে মামলাও করেছে তানিয়ার বাবা। কিন্তু মামলা হলেও গ্রেফতার হবার আগেই কোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়ে এলাকায় বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছে আসামীরা। শুধু তাই নয়, বখাটেসহ তাদের পরিবারের লোকজন তানিয়ার বাবাকে মামলা তুলে নিতে এখন প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। এতে চরম আতঙ্কে দিন কাটছে ভুক্তভোগী পরিবারটির। এমনকি গফরগাঁও থানায় গিয়েও তারা কোনো আইনি সহায়তার আশ্বাস পাচ্ছে না। কিন্তু কেনো?
বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী তানিয়া এবং তার অসহায় পরিবারের পাশে রাষ্ট্র কি দাঁড়াবে না?

পোস্টঃ আওলাদ রুবেল
রিপোর্টার এস এ টিভি ময়মনসিংহ জেলা

#শোক_সংবাদ :৯৬ ব্যাচ আমাদের বন্ধু সুমন (ইমাম বাড়ি)ভালুকায় রোড এক্সিডেনটে মারা গেছে। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রা...
09/07/2020

#শোক_সংবাদ :
৯৬ ব্যাচ আমাদের বন্ধু সুমন (ইমাম বাড়ি)
ভালুকায় রোড এক্সিডেনটে মারা গেছে।
ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন।
বন্ধু সুমনের মৃত্যু তে #এস_এস_সি_৯৬ পরিবার খুবই শোকাহত, বন্ধু সুমনের জন্য জান্নাত কামনা করছি।
ও পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

কে এই ড. জাফর উল্লাহ? আসুন কিছু তথ্য ড. জাফরুল্লাহ সম্পর্কে একটু জেনে নিই।★ চট্টগ্রামের ছেলে জাফরুল্লাহর বাবার শিক্ষক ছি...
05/02/2020

কে এই ড. জাফর উল্লাহ? আসুন কিছু তথ্য ড. জাফরুল্লাহ সম্পর্কে একটু জেনে নিই।

★ চট্টগ্রামের ছেলে জাফরুল্লাহর বাবার শিক্ষক ছিলেন স্বয়ং বিপ্লবী মাস্টারদা সূর্যসেন।

★ঢাকা কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট শেষ করার পর ভর্তি হন ঢাকা মেডিকেল কলেজে। ছাত্র থাকা অবস্থাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজের দুর্নীতির বিরুদ্ধে করেছিলেন সংবাদ সম্মেলন।

★ ১৯৬৪ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এম. বি. বি. এস শেষ করার পর ১৯৬৭ সালে ইংল্যান্ডের রয়েল কলেজ অব সার্জনস থেকে FRCS প্রাইমারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। কিন্তু চূড়ান্ত পর্ব শেষ না হতেই দেশের টানে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে দেশে ফিরে আসেন।

★পাকিস্থানি বাহিনীর নির্মমতার প্রতিবাদে লন্ডনের হাইডপার্কে যে কয়জন বাঙ্গালী পাসপোর্ট ছিড়ে আগুন ধরিয়ে রাষ্ট্রবিহীন নাগরিকে পরিণত হয়েছিল তাদের একজন ড. জাফরুল্লাহ।

★মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিযোদ্ধাদের আর্থিক সহায়তার জন্য বিচারপতি আবু সাইদ চৌধুরী প্রবাসী বাঙ্গালীদের কাছ থেকে ১০ লাখ পাউন্ড চাঁদা যোগাড় করেছিলেন। তিনি কাজটি করেছিলেন ড. জাফরুল্লাহর পরামর্শে।

★ শহীদ জননী জাহানারা ইমাম " একাত্তরের দিনগুলি" বইয়ের ১৬১ ও ১৬২ পৃষ্ঠায় ড. জাফরুল্লাহ ও ডা. মোবিনের পাকিস্তানি হানাদারদের হাত থেকে বেঁচে যাওয়ার ঘটনাটি বিস্তারিতভাবে লিখেন।

★আহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করার জন্য ড. জাফরুল্লাহ ২ নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার মেজর খালেদ মোশাররফের সহযোগিতায় আগরতলার বিশ্রামঘরের মেলাঘরে গড়ে তুলেছিলেন ৪৮০ শয্যা বিশিষ্ট প্রথম ফিল্ড হসপিটাল " বাংলাদেশ হসপিটাল"

★হসপিটালটিতে পর্যাপ্ত নার্স না থাকায় ড. জাফরুল্লাহ নিজে নারী স্বেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণ দেন।

★দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ড. জাফরুল্লাহ গ্রামে গিয়ে শুরু করেন স্বাস্থ্যযুদ্ধ। ফিল্ড হাসপাতালটিকেই কুমিল্লাতে স্বাধীন দেশের প্রথম হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তুলেন। পরবর্তীতে ঢাকার ইস্কাটনে হাসপাতালটি পুনঃস্থাপিত হয়। কিন্তু গ্রামকে উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দু রুপে গড়ে তোলার জন্যে " চলো গ্রামে যাই" স্লোগান নিয়ে হাসপাতালটিকে ঢাকার অদূরে সাভারে " গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র" নামে স্থানান্তর করা হয়।

★ হাসপাতালটিকে " গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র" নামে নামকরণ করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সাভারে হাসপাতালটির জন্য ৩১ একর জমিও বরাদ্দ দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।

★ সম্পূর্ণ অলাভজনক এই এই গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং ড. জাফরুল্লাহ ১৯৭৭ সালে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে ভুমিকা রাখায় স্বাধীনতা পুরস্কার লাভ করেন।

★ড. জাফরুল্লাহ বাকশালে যোগ দিতে বঙ্গবন্ধুর অনুরোধ যেমন উপেক্ষা করেছিলেন, তেমনি জিয়াউর রহমানের দেয়া মন্ত্রীত্বের প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ৪ পৃষ্ঠার একটি চিঠির মাধ্যমে। ফিরিয়ে দিয়েছিলেন এরশাদের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাবও!

★ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পর তাঁর সবচেয়ে বড় অবদান ১৯৮২ সালের জাতীয় ঔষুধ নীতি। স্বাধীনতার পর স্বাস্থ্যখাতে যেটাকে বিবেচনা করা সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি হিসেবে। তাঁর প্রচেষ্টায় আমদানি ওষুধের সংখ্যা কমে দাঁড়ায় ২২৫-এ। বর্তমানে ৯০ শতাংশ ওষুধই দেশে তৈরি হচ্ছে এবং বাংলাদেশ একটি ওষুধ রপ্তানিকারক দেশ হিসেবে গড়ে ওঠার পেছনে এই মানুষটির অবদান বিশাল।

★ড. জাফরুল্লাহ স্বাস্থ্যনীতির সাথে জড়িত থাকায় বি. এম. এর স্বার্থে আঘাত লাগে। তাই বি. এম. এ ১৯৯২ সালে তাঁর সদস্যপদ বাতিল করে। বিনা বিচারে ড. জাফরুল্লাহর ফাঁসি চেয়ে পোস্টারও সাঁটায় তারা।

আমরা ড. জাফরউল্লাহকে না চিনলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বার্কলি বিশ্ববিদ্যালয় ঠিকই চিনেছে এই লোকটাকে। বার্কলি বিশ্ববিদ্যালয় "ইন্টারন্যাশনাল হেলথ হিরো" ঘোষণা করে ড. জাফরুল্লাহকে।

মুক্তিযুদ্ধ করেও, গণমানুষের জন্য কাজ করেও ড. জাফরুল্লাহরা হন বিতর্কিত। কারন, উনারা চাটুকারিতা করতে জানেন না, দালালী করতে জানেন না, জানেন না তেল দিতে!

নষ্ট রাজনীতির বিভাজনে থাকা তরুণ প্রজন্মের প্রতি অনুরোধ, এই মানুষটাকে যদি সম্মানিত করতে নাও পারি, অন্ততপক্ষে যেন ছোট না করি!

©

সবাই স্বাধীন গফরগাঁও শহরের প্রাণকেন্দ্র জামতলা মোড়। সবচেয়ে ব্যস্ত এলাকা। যানবাহনের ভিড় লেগেই থাকে। পথচারীদের জন্য সরু এক...
04/29/2019

সবাই স্বাধীন

গফরগাঁও শহরের প্রাণকেন্দ্র জামতলা মোড়। সবচেয়ে ব্যস্ত এলাকা। যানবাহনের ভিড় লেগেই থাকে। পথচারীদের জন্য সরু এক চিলতে ফুটপাত। এটুকু দিয়েই কোনরকম এঁকেবেঁকে চলতে হয়। ইদানিং উহার উপরেই স্থাপিত হয় নব নির্মিত টাঙ্গাইল রেস্টুরেন্টের স্হায়ী চুলা। আর বিপদজনক গ্যাস সিলিন্ডার রাস্তায় রাখাটাই নিরাপদ! বিস্ফোরণ হলে রাস্তার লোকজন মারা যাবে। হোটেলতো রক্ষা পাবে!

04/24/2019
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার

গত ১৩ এপ্রিল ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার উস্থি ইউনিয়নের পাল্টিপাড়া গ্রামে রিকশাচালক বাদল মিয়া মেম্বার আবুল কাশেমের বিপক্ষে ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের ভোটের সময়। তাই ইউপি নির্বাচনে জয়লাভ করে আবুল কাশেম সুযোগের অপেক্ষায় ছিলেন।
সুযোগটা পেয়ে আক্রোশ মেটালেন গরু চুরির অপবাদে নির্দয়ভাবে পিটিয়ে। রিকশাচালক বাদল মিয়াকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে এখন খাওয়াচ্ছেন জেলের ভাত।

"গফরগাঁওয়ে ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৩০ ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীর নামে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা"শাখাওয়াত হোসেন,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ...
04/23/2019

"গফরগাঁওয়ে ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৩০ ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীর নামে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা"

শাখাওয়াত হোসেন,
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে পৌরসভা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক তাজমুন আহম্মেদসহ ১১ ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকে গুলি করে, কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করার ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান সানিল (২৬), উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ব আবু কাওসারসহ (৩৯) ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ৩০ নেতাকর্মীর নামে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। সোমবার রাতে আহত যুবলীগ নেতা তাজমুন আহম্মেদের ভাই নাজমুল হাছান বাদী হয়ে গফরগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন। বেআইনী জনতাবদ্ধ হয়ে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী কর্মকান্ড,অগ্নিসংযোগ,ভাংচুর, আওয়ামীলীগের প্রতীক নৌকা পোড়ানো এবং হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করে, কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করার অপরাধে দন্ডবিধি ও ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলায় সানিল, কাওসার ছাড়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিব আহমেদ সিয়াম (২০), সাবেক মেয়র মঞ্জুর মিয়ার ছেলে সাখাওয়াত হোসেন সাদ্দাম (৩০), সালটিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদ রাজু (২০), লাল চান (২৫),
শাফায়েত রাব্বি (২৫), এমদাদুল হক মিলন (২৫), আরাফাত (২৪), নাইম (২২), রায়হান (২২), নোহাস মিয়া (২০),অনন্ত (২৪),ফাহিম (২৩), সাব্বীর (২৪),রায়হান (২৩),সিজার (২০), মবিন আকন্দ (২৪),আনন্দ (২২),রিয়াদ (২১), তোফায়েল (২৩),জহিরুল (২৮), শাকিল, (২৫), জহিরুল, (২৪).রাজন(২৩), শহীদ (২৫), এমদাদ (৩৪), মাজাহার মেম্বার (৩৪),মামুন (২৮), আলামিন (২৪), মাজহারুল (২৩) আসামী করা হয়েছে। এ মামলায় আরো অজ্ঞাতনামা ৪০/৫০ জনকে এই মামলার আসামী করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে গফরগাঁও থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুল ইসলাম বলেন, মামলার আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে । একই সাথে মামলার তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।
গত রবিবার সন্ধা সাড়ে ছয়টার দিকে পৌর শহরের চাদনী মোড়ে ব্রহ্মপুত্র নদের বালুমহালের ইজারা আদায়কে কেন্দ্র করে উপজেলা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক আবু কাওসার ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদি হাসান সানিল গ্রæপের সাথে পৌরসভা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক তাজমুন আহম্মেদ গ্রæপের তর্ক-বিতর্ক এবং হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পৌর শহরের জামতলা মোড়ে পৌরসভা যুবলীগের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে কাওসার-সানিল গ্রæপের নেতাকমীৃদের হাতে তাজমুন (৩২),হৃদয় (২৫), বিপুল (২৭). মোস্তাকিম (২০), তারা (২৫),(২০), সোহেল (২৩)সহ ছাত্রলীগ,যুবলীগের ১১ নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়ে ,রামদার কোপে, পিটুনীতে আহত হয়। এ সময় পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাবুল হাছানের মোটর সাইকেল ও ষ্টীলের তৈরি নৌকা প্রতীক আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয় এবং ৭/৮টি মোটর সাইকেল ভাংচুর করা হয়। পৌরসভা যুবলীগের অস্থায়ী কার্যালয়ও ভাংচুর করা হয়।

দৈনিক বাংলা পত্রিকা / আতাউর রহমান মিন্টু

01/08/2019

গফরগাঁওয়ে পুলিশের সাথে আঃলীগ নেতার ছেলে কলেজ পড়ুয়া ছাত্রের মোটর সাইকেল লাইসেন্সকে কেন্দ্র করে, দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তার সাথে বাকবিতণ্ডা ও দস্তাদস্তির কারণে ছাত্রকে গ্রেফতার করে থানা হাজতে নিয়ে নির্যাতন চালায় পুলিশ।এর প্রতিবাদে সড়ক যোগাযোগে বাঁধা, ট্রেন চলাচল ব্যাহত,ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ।
(আ:লীগ নেতা ২নং বারবাড়িয়া ইউ:পির চেয়ারম্যান আবুল কাশেম সাহেবের ছেলে )

ময়মনসিংহ ১০ গফরগাঁও আঃলীগ মনোনয়ন পেয়েছেন জনাব ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এম,পি।শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন রইল।
11/25/2018

ময়মনসিংহ ১০ গফরগাঁও আঃলীগ মনোনয়ন পেয়েছেন জনাব ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এম,পি।শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন রইল।

গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত।০৮ অক্টোবর, ২০১৮ ইং ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। আনুম...
10/08/2018
গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত | সারাদেশ | The Daily Ittefaq

গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত।

০৮ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। আনুমানিক ৭৫ বছর বয়সের নিহত ওই বৃদ্ধের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ঢাকা-ময়মনসিংহ রেললাইনের গফরগাঁও পৌর শহরের সালটিয়া মোক্তারবাড়ি এলাকায় সোমবার ভোরে ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই অজ্ঞাত পরিচয়ের এই বৃদ্ধ নিহত হন।

খবর পেয়ে গফরগাঁও রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির জিআরপি পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। গফরগাঁও জিআরপি ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই শহীদুল্লাহ বলেন, এখন পর্যন্ত নিহত বৃদ্ধের পরিচয় পাওয়া যায়নি। হতভাগার পরনে চেক লুঙ্গি ও সাদা ফতুয়া রয়েছে।

ইত্তেফাক/এএম

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। আনুমানিক ৭৫ বছর বয়সের নিহত ওই বৃদ্ধের পরিচয় পাওয়া যা....

Busybashar
08/17/2018
Busybashar

Busybashar

রিভিউ ভালো না লাগলে এম বি ফিরত দিবো না..🤣🤣 কিন্তু ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না..!😊

Busybashar
08/11/2018
Busybashar

Busybashar

কয়টা প্রশ্ন...
ইন্ডিয়ানরা গুরুর মুত পান করে কেন..?
বা ল্যাংটা সাধুর সামনে ফ্যামিলি নিয়ে কি করে যায়..?
আর সাদা মেয়ে দেখলে ছবি তুলার জন্য পাগল হইয়ে যায় কেন..?🤣😂🤣
https://youtu.be/ixjITpYMzbQ

ইলিয়াস কাঞ্চন কাঁদলেন, সবাইকে কাঁদালেন |
08/07/2018
ইলিয়াস কাঞ্চন কাঁদলেন, সবাইকে কাঁদালেন |

ইলিয়াস কাঞ্চন কাঁদলেন, সবাইকে কাঁদালেন |

LIKE | COMMENT | SHARE | SUBSCRIBE আমি তোমাদের জীবন নিয়ে শঙ্কিত। মানুষ কতটা অমানবিক হতে পারে, তা জানা ছিলোনা। যে সন.....

Busybashar
07/29/2018
Busybashar

Busybashar

ভিডিও টি দেখে নিজে সাবধান হউন এবং অন্য কে সাবধান করতে শেয়ার করুন..!
https://youtu.be/ZWw1gku3rm0

Busybashar
07/26/2018
Busybashar

Busybashar

সামান্য বৃষ্টিতেই ঢাকার শহর পানির শহরে পরিনত হয়,এই সমস্যা থেকে স্থায়ী সমাধানের জন্যই আমার এই ভিডিও,আশাকরি ভালো লাগবে,

Bangladesh Quota Reform Protests and Motivational Speakers | কোঁটা সংস্কার l Busybashar
07/18/2018
Bangladesh Quota Reform Protests and Motivational Speakers | কোঁটা সংস্কার l Busybashar

Bangladesh Quota Reform Protests and Motivational Speakers | কোঁটা সংস্কার l Busybashar

LIKE | COMMENT | SHARE | SUBSCRIBE কোঁটা সংস্কার নিয়ে ওরা নীরব কেনো ? সরকারি চাকুরিতে কোটা ব্যবস্থায় সংস্কার প্রশ....

ময়মনসিংহের কুখ্যাত সন্ত্রাসী শাওন গ্রেফতার ।ময়মনসিংহের কুখ্যাত সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী শাওন গতকাল রাতে এক পুলিশী অভিযান...
03/31/2018

ময়মনসিংহের কুখ্যাত সন্ত্রাসী শাওন গ্রেফতার ।

ময়মনসিংহের কুখ্যাত সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী শাওন গতকাল রাতে এক পুলিশী অভিযানে গ্রেফতার হয়। এই অভিযানটি করা হয় কোতোয়ালী মডেল থানার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমিনের নির্দেশে এক নং পুলিশ ফাড়ির রুহুল কুদ্দুস খানের নেতৃত্বে টি এস আই আনোয়ারের মাধ্যমে ।

ময়মনসিংহ নগরীর সেহড়া ডিবি রোডের সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, খুন, বিস্ফোরক ও মাদক সহ বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী সারোয়ার ওরফে শাওন ওরফে রাজু মিয়াকে নগরীর বারী প্লাজা মার্কেটের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয় ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরেই এই শাওন নগরীতে বিভিন্ন ধরনের অপরাধ্মুলক কর্মকান্ড করে আসতেছিল । তার ধারাবাহিকতায় গতকাল রাতে পুলিশের একটি চৌকশটিম তাকে ধরার জন্য অভিযান চালায় এবং অভিযানটি চালোভাবে সম্পন্ন হয়। এই গ্রেফতার অভিযানে এটিএসআই মোশাররফ হোসেন ও রফিকুল ইসলাম সহ সঙ্গীয় ফোর্স ছিল।

দিনের পর দিন নগরীতে চলে আসা এই ধরনের অপরাধ্মুলক কর্মকান্ড নির্মুল করার লক্ষ্যে ময়মনসিংহ পুলিশ বেশ জোরালোভাবেই কাজ করে চলেছে ।

এইদিকে জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম মাদক , চোরাচালান, জঙ্গিবাদ নির্মুলে দিন-রাত কাজ করে চলেছেন । নগরীর প্রতিটি মানুষ যেন সুখে-শান্তিতে রাত্রিযাপন করতে পারে সেজন্য তিনি নিরলস পরিশ্রম করে চলেছেন । আধুনিক নগরী প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তিনি ঢাকা-ময়মনসিংহ রাস্তা সিসি ক্যামেরার আওতায় এনে রাস্তার দুর্ঘটনা থেকে শুরু করে চুরি,ছিনতাই অনেকাংশে কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছেন ।

প্রতিদিনই নিত্য-নতুন কিছু করার প্রয়াস করে চলেছেন ।

Address

New York, NY
11416

Alerts

Be the first to know and let us send you an email when MindEye posts news and promotions. Your email address will not be used for any other purpose, and you can unsubscribe at any time.

Contact The Business

Send a message to MindEye:

Videos

Nearby media companies


Comments

গফরগাঁও নিউজ পক্ষ থেকে সকলকে অভিনন্দন ও লাল গোলাপ শুভেচ্ছা শুভেচ্ছান্তে সাবেক ছাত্রনেতা ডন বাদশা
এই প্রতারকের সন্ধান চাই...... এই লোকটি সৌদিআরবের প্রবাসী সে আলকাসিম বুরাইদা থাকতো,,,,তাকে যদি সৌদি আরবে কেউ দেখে থাকেন তাহলে আটক করে পুলিশ কে কল দিবেন।।।।।সে একজন এক্সিডেন্টের মৃত ব্যক্তির ইন্সুরেন্সের তিন লাখ রিয়েল নিয়ে পালিয়ে গেছে মৃত ব্যক্তির পরিবারে দুইটি অবুজ,,, বাচ্চা আছে,,,,সে মৃত ব্যক্তির পরিবারের সাথে কোন যোগাযোগ করে না,,,,,,এই লোকটি বাংলাদেশেও চলে যেতে পারে,,,,তার নাম রমজান আলী, থানা গফরগাঁও, জেলা ময়মনসিংহ,,,, যদি কোন ব্যক্তি তার সন্ধান পেয়ে থাকেন তাহলে প্লীজ ইনবক্স করবেন প্লিজ প্লিজ প্লিজ,,,,,,,,,,💥💥💥💥সবাই একটু দয়া করে শেয়ার করবেন।।।।।।।
২ মাসের বেশি করোনায় গফরগাঁও এসে আটকে যাই।তবে, বাড়িতে না থাকলে জানাই হতোনা,এই দূর্নীতির যুগে এখনো এমন নিঃস্বার্থ মানুষ আছে,আসলেই বিরল।এই সম্মানিত ব্যক্তিটি হচ্ছেন, আমাদের ১১নং লংগাইর ইউনিয়ন পরিষদের বাগবাড়ী ২ং ওয়ার্ড এর বিপুল ভোটে বিজয়ী মেম্বর জহিরুল ইসলাম। তিনি করোনা পরিস্থিতিতে সকল সতর্কতা অবলম্বন করে বাগবাড়ীর প্রতিটি দারিদ্র পরিবারে সরকারি এান পৌঁছে দিতে ভোটার আইডি কার্ড সংগ্রহ করছেন যেন, প্রতিটি দারিদ্র পরিবারে প্রাপ্যটুকু পায়।স্যার, এর সততা-নিষ্ঠা,ও আন্তরিকতায় বাগবাড়ীবাসী মুগ্ধ।এভাবেই বাগবাড়ী বাসীর পাশে থাকবেন। বাগবাড়ী বাসীর পক্ষথেকে আপনার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও আন্তরিক দোয়া।
share plz
আমি নিউটা দেখব