Pipra24

Pipra24 Lifestyle Tips and info on beauty, fashion, travel, health, s*x, love and everything else you need to live a fuller and happier life

Operating as usual

🔴সাবধান!! কেন খাওয়া উচিত নয় 'হিমালয়ান পিংক সল্ট' নামের লবণ। আমেরিকার এফডিএ পরিস্কার বলেছে এই লবণের কোন আলাদা স্বাস্থ্য...
10/24/2021

🔴সাবধান!! কেন খাওয়া উচিত নয় 'হিমালয়ান পিংক সল্ট' নামের লবণ।
আমেরিকার এফডিএ পরিস্কার বলেছে এই লবণের কোন আলাদা স্বাস্থ্যগত প্রভাব বা উপকারিতা নাই। বরং এটা ভেজালযুক্ত সাধারন লবণ। এই লবণের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা দাবী একটি প্রতারণা।

হিমালয়ান পিংক সল্ট হলো খনিজ লবণ যাতে 96% থেকে 98% সোডিয়াম ক্লোরাইড ও 2% থেকে 4% ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম এসব থাকে। এই লবণের দাম সাধারণ লবণে চেয়ে বিশগুন বা তারো বেশি। তবে এতে আয়োডিন থাকে না। এটা নিয়মিত খেলে আপনার গলগন্ড হবার সম্ভাবনা বাড়বে। এটা আমরা যে লবণ খাই সেই একই লবন, ২-৪% ভেজাল সহ।

এক কেজি পিংক লবণ ১৫৫০ টাকা। এক কেজি আয়োডাইজড লবণ ২৯ টাকা। ৫০ গুন।

এটাকে আলাদা করে হিমালয়ান বলার যুক্তি নাই। এটা পাঞ্জাবের পাকিস্তান অংশে খনি থেকে তোলা হয়। এটাকে পাইক্কা বা পাকিস্তানি গোলাপি লবণ বা পাঞ্জাবী গোলাপি লবণ বলা বেশি সঠিক।

হিমালয়ান বলে, মার্কেটিং করার জন্য।

এই লবণ দিয়ে ডেকোরেটিভ ল্যাম্প বানানো হয়। বড় খন্ড কাটিং স্ল্যাব হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এই লবণ দিয়ে স্পা করানো হয় ও এটা দিয়ে শটগ্লাস বানিয়ে টাকিলা পান করা হয়।

আমেরিকার এফডিএ পরিস্কার বলেছে এই লবণের কোন আলাদা স্বাস্থ্যগত প্রভাব বা উপকারিতা নাই। বরং এটা ভেজালযুক্ত সাধারন লবণ।

এই লবণের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা দাবী একটি প্রতারণা।

দয়া করে কোন রোগ সারানোর জন্য এই পাথুরে লবণ খাবেন না। এইটা পাকিস্তানি পাথুরে লবণ; আর কিছু না। এটার সাথে আমাদের টেবিলে যে লবণ থাকে, তার কোন পার্থক্য নাই। (ভেজালটুকু বাদে)

এবার আসল শকটা দেই।
সিংগাড়াতে মামু যে বিটলবণ দেয় এইটা সেই লবণ এর কেমিক্যাল কম্পোজিশনে ফ‍্যাক্টরিতে বানানো লবন। সেখানে এই রক সল্ট মেশানো থাকে।

হিমালায়ান বললে হেলথ ফিটনেস ওয়েলনেস লাইফস্টাইল সব চলে আসে।

সখিনা কে সাকিনা আর জরিনা কে জারিনা বলার মতো বিষয়টা। কড়াইল বস্তিতে জরিনা, গুলশানে এলে জারিনা।

আর এটা বেশি খেলে এর মধ‍্যে থাকা ফ্লুরাইড দীর্ঘমেয়াদে বিষক্রিয়া করে। ক‍্যান্সারও হয়।

🔴সাবধান!! কেন খাওয়া উচিত নয় 'হিমালয়ান পিংক সল্ট' নামের লবণ।
আমেরিকার এফডিএ পরিস্কার বলেছে এই লবণের কোন আলাদা স্বাস্থ্যগত প্রভাব বা উপকারিতা নাই। বরং এটা ভেজালযুক্ত সাধারন লবণ। এই লবণের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা দাবী একটি প্রতারণা।

হিমালয়ান পিংক সল্ট হলো খনিজ লবণ যাতে 96% থেকে 98% সোডিয়াম ক্লোরাইড ও 2% থেকে 4% ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম এসব থাকে। এই লবণের দাম সাধারণ লবণে চেয়ে বিশগুন বা তারো বেশি। তবে এতে আয়োডিন থাকে না। এটা নিয়মিত খেলে আপনার গলগন্ড হবার সম্ভাবনা বাড়বে। এটা আমরা যে লবণ খাই সেই একই লবন, ২-৪% ভেজাল সহ।

এক কেজি পিংক লবণ ১৫৫০ টাকা। এক কেজি আয়োডাইজড লবণ ২৯ টাকা। ৫০ গুন।

এটাকে আলাদা করে হিমালয়ান বলার যুক্তি নাই। এটা পাঞ্জাবের পাকিস্তান অংশে খনি থেকে তোলা হয়। এটাকে পাইক্কা বা পাকিস্তানি গোলাপি লবণ বা পাঞ্জাবী গোলাপি লবণ বলা বেশি সঠিক।

হিমালয়ান বলে, মার্কেটিং করার জন্য।

এই লবণ দিয়ে ডেকোরেটিভ ল্যাম্প বানানো হয়। বড় খন্ড কাটিং স্ল্যাব হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এই লবণ দিয়ে স্পা করানো হয় ও এটা দিয়ে শটগ্লাস বানিয়ে টাকিলা পান করা হয়।

আমেরিকার এফডিএ পরিস্কার বলেছে এই লবণের কোন আলাদা স্বাস্থ্যগত প্রভাব বা উপকারিতা নাই। বরং এটা ভেজালযুক্ত সাধারন লবণ।

এই লবণের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা দাবী একটি প্রতারণা।

দয়া করে কোন রোগ সারানোর জন্য এই পাথুরে লবণ খাবেন না। এইটা পাকিস্তানি পাথুরে লবণ; আর কিছু না। এটার সাথে আমাদের টেবিলে যে লবণ থাকে, তার কোন পার্থক্য নাই। (ভেজালটুকু বাদে)

এবার আসল শকটা দেই।
সিংগাড়াতে মামু যে বিটলবণ দেয় এইটা সেই লবণ এর কেমিক্যাল কম্পোজিশনে ফ‍্যাক্টরিতে বানানো লবন। সেখানে এই রক সল্ট মেশানো থাকে।

হিমালায়ান বললে হেলথ ফিটনেস ওয়েলনেস লাইফস্টাইল সব চলে আসে।

সখিনা কে সাকিনা আর জরিনা কে জারিনা বলার মতো বিষয়টা। কড়াইল বস্তিতে জরিনা, গুলশানে এলে জারিনা।

আর এটা বেশি খেলে এর মধ‍্যে থাকা ফ্লুরাইড দীর্ঘমেয়াদে বিষক্রিয়া করে। ক‍্যান্সারও হয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন ঢাকা মহানগরীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের কোভ...
10/15/2021

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন ঢাকা মহানগরীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকা প্রদান সংক্রান্ত

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন ঢাকা মহানগরীর সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকা প্রদান সংক্রান্ত

10/12/2021
10/09/2021
10/09/2021
10/09/2021
দীর্ঘ বিরতির পর শীঘ্রই খুলতে যাচ্ছে স্কুল ও কলেজ। করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে ঘরের বাইরে ভাইরাস থেকে সুরক্ষার জন্য শিক্...
09/10/2021

দীর্ঘ বিরতির পর শীঘ্রই খুলতে যাচ্ছে স্কুল ও কলেজ। করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে ঘরের বাইরে ভাইরাস থেকে সুরক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের উচিৎ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জেনে নেয়া।

দীর্ঘ বিরতির পর শীঘ্রই খুলতে যাচ্ছে স্কুল ও কলেজ। করোনাভাইরাস মহামারীর এই সময়ে ঘরের বাইরে ভাইরাস থেকে সুরক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের উচিৎ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জেনে নেয়া।

??
09/09/2021

??

??

08/30/2021
কুসংস্কার এবং গুজবে কান দিবেন না
08/16/2021

কুসংস্কার এবং গুজবে কান দিবেন না

জানেন কি মরিংগা পাউডার (Moringa Powder) বা সজিনা পাতা গুড়াকে সুপার ফুড বলা হয়।সজিনা পাতা সম্পর্কে কিছু তথ্য যা আপনাকে অব...
08/11/2021

জানেন কি মরিংগা পাউডার (Moringa Powder) বা সজিনা পাতা গুড়াকে সুপার ফুড বলা হয়।
সজিনা পাতা সম্পর্কে কিছু তথ্য যা আপনাকে অবাক করবেঃ

📷সজিনা পাতায় কমলা লেবুর তুলনায় ৭ গুণ ভিটামিন-সি রয়েছে।
📷 দুধের তুলনায় ৪ গুণ ক্যালসিয়াম এবং দুই গুণ আমিষ রয়েছে।
📷 গাজরের তুলনায় ৪ গুণ ভিটামিন-এ পাওয়া যায়।
📷 কলার চেয়ে ৩ গুণ পটাশিয়াম বিদ্যমান।
শুনে আরও অবাক হবেন যে সজিনার পাতা পানিকে আর্সেনিক মুক্তও করে।
আসুন এই অলৌকিক পাতার আরো কিছু বিস্ময়কর গুন জেনে নেইঃ
📷সজিনার পাতা হৃদরোগীদের জন্যে ঠিক ওষুধের মত কাজ করে, উচ্চ রক্তচাপ কমায়, কোলেস্টেরল কমায়, ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রিত রাখে।
📷এক টেবিল চামচ শুকনা সজিনা পাতার গুঁড়া থেকে ১-২ বছর বয়সী শিশুদের অত্যবশ্যকীয় ১৪% আমিষ, ৪০% ক্যালসিয়াম ও ২৩% লৌহ ও ভিটামিন-এ সরবরাহ হয়ে থাকে।
📷দৈনিক ৬ চামচ সজনে পাতার গুঁড়া একটি গর্ভবর্তী বা স্তন্যদাত্রী মায়ের চাহিদার সবটুকু ক্যালসিয়াম ও আয়রন সরবরাহ করতে সক্ষম।
📷 সজিনা পাতা বহুমূত্র রোগের জন্যে অনেক উপকারী।
📷সজিনার ডাটা থেকে সজিনার পাতা অধিক উপকারী।
📷এলার্জি জনিত সমস্যা হলে সজিনার পাতা বেটে আক্রান্ত স্থানে প্রলেপ দিলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।
📷প্রতিদিন সকালে এক চামচ শুকনা গুড়া পানিতে গুলিয়ে খেলে পেটের প্রদাহ, গ্যাস্ট্রিক মুক্তি পাওয়া যায়।
📷গেটেবাত এর জন্যে সজিনা পাতা বেটে হাটুতে বা যে স্থানে ব্যাথা হয় লাগিয়ে রাখলে ব্যাথা মুক্তি পাওয়া যায়।
📷সজিনার ফুল এ ও অনেক উপকার আছে যেমন : হজম শক্তি বাড়ায়, কোষ্ট কাঠিন্য দূর করে ইত্যাদি।
📷সজিনার পাতা পোকার কামড়ের তাতক্ষনাৎ এন্টিসেপ্টিক হিসেবে অনেজ ভালো কাজ করে।
📷 সজিনার পাতা ক্রিমিনাশক হিসেবে কাজ করে। ক্রিমি সমস্যা করলে সজিনা পাতা গুড়ো করে অথবা অন্য খাবারের সাথে খান।
📷সজিনা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, শরীর কে কর্মঠ রাখে। হাড় এর ক্ষমতা বৃদ্ধি করে যা আত্মরক্ষার ও ভূমিকা পালন করে।
📷 সজিনা পাতা যকৃত ও কিডনির কাজ সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করতে সাহায্য করে। রোগ প্রতিরোধ করে কিডনি ও লিভার সুস্থ রাখে।
📷সজিনা পাতা গর্ভবস্থায় মায়ের শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে এবং মায়ের বুকের দুধ বৃদ্ধি করে কোনো ধরনের পার্শ প্রতিক্রিয়া ছাড়া।
📷শরীরের ওজন কমাতে অনেক সাহায্য করে। ব্যায়াম এর পাশাপাশি সজিনা পাতা খান।
📷 ডাক্তার ও বিশেষজ্ঞ দের মতে সজিনা পাতা ও ডাটা প্রায় ৩০০+ রোগের জন্যে উপকারী ও রোগ নিরাময় করে।
📷সজনে পাতা বাচ্চাদের পেট পরিষ্কার রাখে।
📷 সজনে পাতা চামড়া ও চুলের জন্যে ও ভালো।
এবার এর ব্যবহারবিধি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাকঃ
📷ত্বক এর জন্যে :
মধুর সাথে সজিনা পাতার রস বা শুকনো গুড়া মিশিয়ে মুখে লাগানে পারেন। এতে মুখের চামড়া টান টান হয়, পরিষ্কার হয় ব্রণ দূর হয়।
📷 ত্বক এর ক্ষতস্থান এর মধ্যে লাগাতে পারেন পাতা বেটে বা গুড়া পেস্ট করে। সজনে পাতা ত্বক এর মধ্যে ক্ষত থাকলে তা ও সারায়।
📷চুলের জন্যে :
সজনে পাতার রস বা শুকনা গুড়া পেস্ট করে সাথে মধু মিক্স করে বা এমনি মাথায় দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এতে চুল পড়া কমবে। মাথার ত্বক পুষ্টি গুণ পাবে। মাথা ঠান্ডা থাকবে। চুল সুন্দর ও ঘন হবে।

*কারা_ভ্যাক্সিন_নিতে_পারবেন_না?জ্বর, অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী যিনি কেমোথেরাপি বা রেডিওথেরাপি পাচ্ছ...
08/06/2021

*কারা_ভ্যাক্সিন_নিতে_পারবেন_না?
জ্বর, অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী যিনি কেমোথেরাপি বা রেডিওথেরাপি পাচ্ছেন, ২ সপ্তাহের মধ্যে অন্য কোন ভ্যাক্সিন নিলে, যাদের প্রকট এলার্জির সমস্যা এবং যাদের ভ্যাক্সিনের কোনো একটি উপাদানে এলার্জি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে (আগে যদি এমন হয়ে থাকে)

* কারা ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন? কোন ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা কতটুকু??

*ভ্যাক্সিন_নেয়ার_পরে_কি_ধরনের_পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া_হতে_পারে?
👉 জ্বর, মাথা ব্যাথা, শরীর ব্যাথা, ক্লান্তি লাগা, ভ্যাক্সিন দেয়ার জায়গায় মাংসপেশিতে ব্যাথা বা লাল হয়ে যাওয়া। এগুলো যে কারোরই হতে পারে।

*যে_সব_মায়েদের_ডায়াবেটিস_উচ্চরক্তচাপ_হাঁপানী কিডনি_রোগ_আছে_তারা_কি_ভ্যাক্সিন_নিতে_পারবেন?
👉 হ্যাঁ। তারাও নিতে পারবেন তবে ভ্যাক্সিন নেয়ার আগে এসব রোগ থাকলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় নিয়ন্ত্রণ করে তারপর ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন। সেজন্য নিয়মিত চিকিৎসা নিতে হবে এবং ভ্যাক্সিন নেয়ার আগে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

গর্ভবতী_মায়েরা_কোভিড১৯_ভ্যাক্সিন_নিতে_পারবেন?
👉 গর্ভের ১৪-৩৩ সপ্তাহের মধ্যে যে কোন ধরনের কোভিড১৯ ভ্যাক্সিন নিতে পারবেন। (যদি সরকার অনুমোদন দেয়)।

*গর্ভের_শিশু_কি_সুরক্ষা_পাবে?
১৪-৩৩ সপ্তাহের মধ্যে ২ ডোজ ভ্যাক্সিন গ্রহণ সম্পন্ন করতে পারলে মায়ের শরীরে তৈরি হওয়া এন্টিবডি রক্তের মাধ্যমে গর্ভের শিশুর শরীরে যাবে এবং শিশু করোনাভাইরাস আক্রমণ থেকে সুরক্ষা পাবে।

*মা_এবং_বাচ্চার_কোন_ক্ষতি_হবে_কিনা?
👉 গবেষণায় (BMJ) দেখা গিয়েছে এখন পর্যন্ত যে সব দেশে গর্ভবতী মায়েরা টীকা পেয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে মায়েদের ভ্যাক্সিন পরবর্তী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (যেটা সবারই হতে পারে) ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা হয়নি।
এবং বাচ্চার কোন সমস্যা হয়েছে বলেও গবেষণায় প্রমান পাওয়া যায়নি।

*দুগ্ধদানকারী_মা_ভ্যাক্সিন_নিতে_পারবেন?
👉 অবশ্যই পারবেন এবং মায়ের কাছ থেকে বুকের দুধের মাধ্যমে বাচ্চার শরীরে এন্টিবডি গিয়ে বাচ্চাকে সুরক্ষা দিবে।
এতে মায়ের (ভ্যাক্সিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বাদে) এবং বাচ্চার কোনো ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নাই।

*গর্ভবতী_এবং_দুগ্ধদানকারী_মা_ভ্যাক্সিন_নেয়ার_আগে_বা_পরে_কোন_সতর্কতা_অবলম্বন_করবেন_কিনা?
👉 না। তেমন কোনো সতর্কতার দরকার নাই। স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবেন।

প্রয়োজনীয় কিছু টিপস ❤️❤️❤️
08/04/2021

প্রয়োজনীয় কিছু টিপস ❤️❤️❤️

কিডনিদেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ কিডনি বা বৃক্ক, যা সম্পূর্ণরূপে অকার্যকর হয়ে গেলে মানুষ বেঁচে থাকতে পারে না। পরিপূর্ণ বিকল...
08/01/2021

কিডনি

দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ কিডনি বা বৃক্ক, যা সম্পূর্ণরূপে অকার্যকর হয়ে গেলে মানুষ বেঁচে থাকতে পারে না। পরিপূর্ণ বিকল হওয়া ছাড়াও কিডনির নানা ধরনের রোগ হয়।

তবে সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, নেফ্রাইটিসের কারণে ৪৬ শতাংশ, ডায়াবেটিসের কারণে ৩৮ শতাংশ ও উচ্চ রক্তচাপের কারণে ১১ শতাংশ কিডনি বিকল হয়। এছাড়া বংশগত, ওষুধের প্রভাব ইত্যাদি কারণ রয়েছে।

কিডনি

দেহের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ কিডনি বা বৃক্ক, যা সম্পূর্ণরূপে অকার্যকর হয়ে গেলে মানুষ বেঁচে থাকতে পারে না। পরিপূর্ণ বিকল হওয়া ছাড়াও কিডনির নানা ধরনের রোগ হয়।

তবে সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, নেফ্রাইটিসের কারণে ৪৬ শতাংশ, ডায়াবেটিসের কারণে ৩৮ শতাংশ ও উচ্চ রক্তচাপের কারণে ১১ শতাংশ কিডনি বিকল হয়। এছাড়া বংশগত, ওষুধের প্রভাব ইত্যাদি কারণ রয়েছে।

❤অভিনন্দন কিশোয়ার চৌধুরী❤খিচুড়ি থেকে ফাইনালে পান্তা ভাত, আলু ভর্তা - বাংলাদেশি খাবারকে কিশোয়ার চৌধুরী নিয়ে গেছেন অন্য এক...
07/13/2021

❤অভিনন্দন কিশোয়ার চৌধুরী❤
খিচুড়ি থেকে ফাইনালে পান্তা ভাত, আলু ভর্তা - বাংলাদেশি খাবারকে কিশোয়ার চৌধুরী নিয়ে গেছেন অন্য এক উচ্চতায়৷
মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া ২০২১ এর ফাইনালে জয়ী হয়েছেন জাস্টিন নারায়ণ, পয়েন্ট ১২৫
বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার ১১৪ পয়েন্ট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন৷🎉

❤অভিনন্দন কিশোয়ার চৌধুরী❤
খিচুড়ি থেকে ফাইনালে পান্তা ভাত, আলু ভর্তা - বাংলাদেশি খাবারকে কিশোয়ার চৌধুরী নিয়ে গেছেন অন্য এক উচ্চতায়৷
মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া ২০২১ এর ফাইনালে জয়ী হয়েছেন জাস্টিন নারায়ণ, পয়েন্ট ১২৫
বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার ১১৪ পয়েন্ট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন৷🎉

কাঁচা পেঁপে দিয়েই যে টুটি ফ্রুটিতৈরি হয় তা হয়তো অনেকেই জানিনা। খাবারের সৌন্দর্য বাড়াতে টুটি ফ্রুটি সাধারণত কেক, পাউরুটি,...
06/28/2021
টুটি ফ্রুটির সহজ রেসিপি । Tutti Frutti Recipe | How To Make Tutti Frutti | टूटी फ्रूटी रेसपी

কাঁচা পেঁপে দিয়েই যে টুটি ফ্রুটি
তৈরি হয় তা হয়তো অনেকেই জানিনা।
খাবারের সৌন্দর্য বাড়াতে টুটি ফ্রুটি সাধারণত কেক, পাউরুটি, বিস্কিট প্রভৃতিতে ব্যবহার করা হয়। এটা খুব কালারফুল এবং খাবারের স্বাদ বৃদ্ধি করে। শিশুরা এটি খেতে খুবই পছন্দ করে।
চলুন রেসিপি জেনে নেয়া যাক-আর সহজ রেসিপি দেখে আজই ট্রাই করুন। আমি সিউর, আপনার বানানো আইটেম দেখে নিজেই অবাক হয়ে যাবেন।
https://youtu.be/xeZC_ptO4Js

টুটি ফ্রুটির সহজ রেসিপি । Tutti Frutti Recipe | How To Make Tutti Frutti | टूटी फ्रूटी रेसपी Tutti Frutti, Papaya Candyবাড়িতে টুটি ফ্রুটি তৈরীর সবচেয়ে সহজ...

কিছু শারীরিক ব্যথা আছে সামান্য গাছ গাছালি ঔষধে ভালো হয়ে যায়
06/19/2021

কিছু শারীরিক ব্যথা আছে সামান্য গাছ গাছালি ঔষধে ভালো হয়ে যায়

কিছু শারীরিক ব্যথা আছে সামান্য গাছ গাছালি ঔষধে ভালো হয়ে যায়

ম্যাংগো জুস তৈরি করে সংরক্ষণ করুন খুব সহজেই  https://youtu.be/WIZ4cKw2nPM
06/12/2021

ম্যাংগো জুস তৈরি করে সংরক্ষণ করুন খুব সহজেই https://youtu.be/WIZ4cKw2nPM

ম্যাংগো জুস তৈরি করে সংরক্ষণ করুন খুব সহজেই https://youtu.be/WIZ4cKw2nPM

05/27/2021
05/25/2021
চলছে পবিত্র মাহে রমজান। তার ওপরে অসহ্য গরম। গরমে অতিষ্ঠ মানুষ। অতিরিক্ত গরমে ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার চাহিদা থাকে বেশিরভাগ মান...
04/21/2021

চলছে পবিত্র মাহে রমজান। তার ওপরে অসহ্য গরম। গরমে অতিষ্ঠ মানুষ। অতিরিক্ত গরমে ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার চাহিদা থাকে বেশিরভাগ মানুষের।
আর রমজানে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে শরবত বানানো থেকে শুরু করে খেয়েও থাকি আমরা। তবে আপনি জানেন কি? এই ঠাণ্ডা পানি পান করার অভ্যাস ডেকে আনতে পারে ভয়াবহ বিপদ।

আসুন জেনে নেয় মাত্রাতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে যেসব ভয়াবহ বিপদ হতে পারে।

১.বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার পরে ঠাণ্ডা পানি পান করা ঠিক নয়। ঠাণ্ডা পানি শ্বাসনালীতে অতিরিক্ত পরিমাণে শ্লেষ্মার আস্তরণ তৈরি হয়, যা থেকে সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

২. প্রতিনিয়ত মাত্রাতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে রক্তনালী সংকুচিত হয়ে পড়ে ও স্বাভাবিক পরিপাক ক্রিয়াও বাধাপ্রাপ্ত হয়। ফলে হজমের মারাত্মক সমস্যা হতে পারে।

৩.বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর ও শরীরচর্চা করার পর ঠাণ্ডা পানি একেবারেই পান করা যাবে না। কারণ ঘণ্টাখানেক শরীরচর্চা করার পর শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকটা বেড়ে যায়। এ সময় ঠাণ্ডা পানি পান করলে হজমের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৪.ঠাণ্ডা পানি পান করলে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে দাঁতে। দন্ত চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে দাঁতের ভেগাস স্নায়ুর ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। ফলে আমাদের হৃদযন্ত্রের গতি অনেকটা কমে যেতে পারে।

তাই, সারাদিন রোজা রেখে ইফতারের শুরু অতিরিক্ত ঠান্ডা পানি দিয়ে করবেন না। প্রয়োজনে ইফতারের ২০ মিনিট আগে ঠান্ডা পানি ফ্রিজ থেকে বের করে সাধারণ তাপমাত্রায় রাখুন, এরপর গ্রহণ করুন। নিজের দেহের সুস্থতা নিশ্চিত করুন নিজেই।

চলছে পবিত্র মাহে রমজান। তার ওপরে অসহ্য গরম। গরমে অতিষ্ঠ মানুষ। অতিরিক্ত গরমে ঠাণ্ডা পানি খাওয়ার চাহিদা থাকে বেশিরভাগ মানুষের।
আর রমজানে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে শরবত বানানো থেকে শুরু করে খেয়েও থাকি আমরা। তবে আপনি জানেন কি? এই ঠাণ্ডা পানি পান করার অভ্যাস ডেকে আনতে পারে ভয়াবহ বিপদ।

আসুন জেনে নেয় মাত্রাতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে যেসব ভয়াবহ বিপদ হতে পারে।

১.বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার পরে ঠাণ্ডা পানি পান করা ঠিক নয়। ঠাণ্ডা পানি শ্বাসনালীতে অতিরিক্ত পরিমাণে শ্লেষ্মার আস্তরণ তৈরি হয়, যা থেকে সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

২. প্রতিনিয়ত মাত্রাতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে রক্তনালী সংকুচিত হয়ে পড়ে ও স্বাভাবিক পরিপাক ক্রিয়াও বাধাপ্রাপ্ত হয়। ফলে হজমের মারাত্মক সমস্যা হতে পারে।

৩.বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর ও শরীরচর্চা করার পর ঠাণ্ডা পানি একেবারেই পান করা যাবে না। কারণ ঘণ্টাখানেক শরীরচর্চা করার পর শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকটা বেড়ে যায়। এ সময় ঠাণ্ডা পানি পান করলে হজমের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৪.ঠাণ্ডা পানি পান করলে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে দাঁতে। দন্ত চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে দাঁতের ভেগাস স্নায়ুর ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। ফলে আমাদের হৃদযন্ত্রের গতি অনেকটা কমে যেতে পারে।

তাই, সারাদিন রোজা রেখে ইফতারের শুরু অতিরিক্ত ঠান্ডা পানি দিয়ে করবেন না। প্রয়োজনে ইফতারের ২০ মিনিট আগে ঠান্ডা পানি ফ্রিজ থেকে বের করে সাধারণ তাপমাত্রায় রাখুন, এরপর গ্রহণ করুন। নিজের দেহের সুস্থতা নিশ্চিত করুন নিজেই।

Photos from Pipra24's post
04/21/2021

Photos from Pipra24's post

সাস্থ্য টিপস্
04/02/2021

সাস্থ্য টিপস্

চলছে দেশের সবচেয়ে বড় কুকিং রিয়্যালিটি শো সেরা রাঁধুনী ১৪২৭-এর রেজিস্ট্রেশন। এতে অংশ নিতে আপনার সেরা রেসিপিটি কুরিয়ার করে...
04/02/2021

চলছে দেশের সবচেয়ে বড় কুকিং রিয়্যালিটি শো সেরা রাঁধুনী ১৪২৭-এর রেজিস্ট্রেশন। এতে অংশ নিতে আপনার সেরা রেসিপিটি কুরিয়ার করে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়:
সেরা রাঁধুনী ১৪২৭, স্কয়ার সেন্টার, ৪৮ মহাখালি বা/এ, ঢাকা ১২১২।

অথবা রেসিপির মোবাইলে তোলা ছবি ও যোগাযোগের তথ্য ইমেইল করুন: [email protected]

সেরা রাঁধুনীর ফেসবুক পেইজ: https://www.facebook.com/SheraRadhuni

সেরা রাঁধুনীর ওয়েবসাইট: www.sheraradhuni.com

চলছে দেশের সবচেয়ে বড় কুকিং রিয়্যালিটি শো সেরা রাঁধুনী ১৪২৭-এর রেজিস্ট্রেশন। এতে অংশ নিতে আপনার সেরা রেসিপিটি কুরিয়ার করে পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়:
সেরা রাঁধুনী ১৪২৭, স্কয়ার সেন্টার, ৪৮ মহাখালি বা/এ, ঢাকা ১২১২।

অথবা রেসিপির মোবাইলে তোলা ছবি ও যোগাযোগের তথ্য ইমেইল করুন: [email protected]

সেরা রাঁধুনীর ফেসবুক পেইজ: https://www.facebook.com/SheraRadhuni

সেরা রাঁধুনীর ওয়েবসাইট: www.sheraradhuni.com

🌿স্টেভিয়া কি?স্টেভিয়া উপকারী এক ভেষজ উদ্ভিদ যা বিশ্বে সুপরিচিত। এটি গুল্ম জাতীয় বহু বর্ষজীবী উদ্ভিদ। স্টেভিয়ার পাতা চিনি...
03/25/2021

🌿স্টেভিয়া কি?
স্টেভিয়া উপকারী এক ভেষজ উদ্ভিদ যা বিশ্বে সুপরিচিত। এটি গুল্ম জাতীয় বহু বর্ষজীবী উদ্ভিদ। স্টেভিয়ার পাতা চিনির চেয়ে কমপক্ষে ৪০গুণ বেশি মিষ্টি এবং এর পাতায় বিদ্যমান স্টেভিয়াসাইড চিনির চেয়ে ৩০০ গুণ বেশি মিষ্টি।
🌿কেন স্টেভিয়া?
চিনির বিকল্প হিসেবে জিরো ক্যালরি, জিরো কার্বোহাইড্রেট ও রক্তে চিনির পরিমাণ বা শর্করার মাত্রা বাড়ায় না।
🌿 স্টেভিয়ার উপকারিতাঃ-
🔸এতে কোন ক্যালরি ও কার্বোহাইড্রেট নেই।
🔸উপাদানটিতে অ্যাসপার্টেম, সেকারিন, সুক্রলস বা কৃত্রিম মিষ্টি জাতীয় কোনো জিনিস নেই।
🔸ক্ষতিকর চিনির বিকল্প হিসেবে ডায়াবেটিক রোগীসহ সকলে খেতে পারবেন।
🔸এতে রয়েছে বিভিন্ন খনিজ ও ভিটামিন ;
যেমনঃ-ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, বিটা - ক্যারোটিন, ম্যাগনেসিয়াম,আয়রন, ফাইবার, ভিটামিন ই, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি১, রিবোফ্লাবিন ইত্যাদি।
🌿স্টেভিয়া ব্যবহারের নিয়মঃ-
🔸স্টেভিয়ার পাতার পাউডার শরবত, পায়েশ, মিষ্টি দই, কেক, পুডিং, আইসক্রিম ইত্যাদি তৈরী করে খাওয়া যায়।
🔸স্টেভিয়ার তাজা পাতা বা শুকনো পাতা বা পাতার গুড়া রাতে ভিজিয়ে রেখে সকালে সেই মিষ্টি পানি খাওয়া যায়।
🔸সরাসরি স্টেভিয়ার তাজা পাতা খাওয়া যায়।
🔸সরাসরি স্টেভিয়ার গুঁড়া খাওয়া যায়।
🔸স্টেভিয়ার তাজা পাতা ছেচেঁও খাওয়া যাবে ; যেমন চা/কফি বা অন্য যে কোন খাবারের সাথে।
🔸পাতা কুচি কুচি করে কেটে সালাদে মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।
🔸পানের সাথে জর্দ্দার পরিবর্তে মিষ্টি পান হিসেবে খাওয়া যাবে।
🔸চা বা কফির সাথে ব্যবহারের জন্য চা চামচের চার ভাগের একভাগ স্টেভিয়ার পাউডার চায়ের কাপে ঢেলে নিয়ে চামচ দিয়ে নেড়ে প্রিজ দিয়ে চা কাপটা ঢেকে রাখুন ২/৩ মিনিট। পরে আবার চা চামচ দিয়ে নেড়ে পান করুন। মিষ্টি কম বেশি করতে পাউডার কম বা বেশি করে ব্যবহার করুন।
🔸অল্প পানিতে শুকনো পাতা বা পাতার গুড়া ভিজিয়ে ১০ মিনিট পর গরম পানি মিশিয়ে হারবাল টি হিসেবে পান করতে পারবেন।

🌿স্টেভিয়া কি?
স্টেভিয়া উপকারী এক ভেষজ উদ্ভিদ যা বিশ্বে সুপরিচিত। এটি গুল্ম জাতীয় বহু বর্ষজীবী উদ্ভিদ। স্টেভিয়ার পাতা চিনির চেয়ে কমপক্ষে ৪০গুণ বেশি মিষ্টি এবং এর পাতায় বিদ্যমান স্টেভিয়াসাইড চিনির চেয়ে ৩০০ গুণ বেশি মিষ্টি।
🌿কেন স্টেভিয়া?
চিনির বিকল্প হিসেবে জিরো ক্যালরি, জিরো কার্বোহাইড্রেট ও রক্তে চিনির পরিমাণ বা শর্করার মাত্রা বাড়ায় না।
🌿 স্টেভিয়ার উপকারিতাঃ-
🔸এতে কোন ক্যালরি ও কার্বোহাইড্রেট নেই।
🔸উপাদানটিতে অ্যাসপার্টেম, সেকারিন, সুক্রলস বা কৃত্রিম মিষ্টি জাতীয় কোনো জিনিস নেই।
🔸ক্ষতিকর চিনির বিকল্প হিসেবে ডায়াবেটিক রোগীসহ সকলে খেতে পারবেন।
🔸এতে রয়েছে বিভিন্ন খনিজ ও ভিটামিন ;
যেমনঃ-ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, বিটা - ক্যারোটিন, ম্যাগনেসিয়াম,আয়রন, ফাইবার, ভিটামিন ই, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি১, রিবোফ্লাবিন ইত্যাদি।
🌿স্টেভিয়া ব্যবহারের নিয়মঃ-
🔸স্টেভিয়ার পাতার পাউডার শরবত, পায়েশ, মিষ্টি দই, কেক, পুডিং, আইসক্রিম ইত্যাদি তৈরী করে খাওয়া যায়।
🔸স্টেভিয়ার তাজা পাতা বা শুকনো পাতা বা পাতার গুড়া রাতে ভিজিয়ে রেখে সকালে সেই মিষ্টি পানি খাওয়া যায়।
🔸সরাসরি স্টেভিয়ার তাজা পাতা খাওয়া যায়।
🔸সরাসরি স্টেভিয়ার গুঁড়া খাওয়া যায়।
🔸স্টেভিয়ার তাজা পাতা ছেচেঁও খাওয়া যাবে ; যেমন চা/কফি বা অন্য যে কোন খাবারের সাথে।
🔸পাতা কুচি কুচি করে কেটে সালাদে মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।
🔸পানের সাথে জর্দ্দার পরিবর্তে মিষ্টি পান হিসেবে খাওয়া যাবে।
🔸চা বা কফির সাথে ব্যবহারের জন্য চা চামচের চার ভাগের একভাগ স্টেভিয়ার পাউডার চায়ের কাপে ঢেলে নিয়ে চামচ দিয়ে নেড়ে প্রিজ দিয়ে চা কাপটা ঢেকে রাখুন ২/৩ মিনিট। পরে আবার চা চামচ দিয়ে নেড়ে পান করুন। মিষ্টি কম বেশি করতে পাউডার কম বা বেশি করে ব্যবহার করুন।
🔸অল্প পানিতে শুকনো পাতা বা পাতার গুড়া ভিজিয়ে ১০ মিনিট পর গরম পানি মিশিয়ে হারবাল টি হিসেবে পান করতে পারবেন।

Address

New York, NY

Alerts

Be the first to know and let us send you an email when Pipra24 posts news and promotions. Your email address will not be used for any other purpose, and you can unsubscribe at any time.

Contact The Business

Send a message to Pipra24:

Videos

Nearby media companies


Comments

Happy Valentine day dear Nimmi..
Have a Happy Valentine's Day