BNP Newsdesk

BNP Newsdesk This page contains only the News of BNP collected from all other news agencies in Bangladesh.

Operating as usual

হাসিনা আইয়ুব-ইয়াহিয়ার চেয়ে শক্তিশালী নন: কাদের সিদ্দিকীকৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, “শেখ...
09/07/2013

হাসিনা আইয়ুব-ইয়াহিয়ার চেয়ে শক্তিশালী নন: কাদের সিদ্দিকী

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, “শেখ হাসিনা আইযুব খান ও ইয়াহিয়া খানের চেয়ে শক্তিশালী নন। তারা যেভাবে জনগণের দাবি মানতে বাধ্য হয়েছিলেন, শেখ হাসিনাও জনগণের সবচেয়ে বেশি দাবি মানতে বাধ্য হবে। অন্যথায় তিনি ক্ষমতা থেকে যোজন যোজন দূরে যেতে হবে।”

শনিবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) এর উদ্যোগে ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মাহমুদুর রহমান’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

রোরবার নরসিংদী থেকে খালেদা জিয়ার জনসভা কর্মসূচি শুরু---------------------------------------------------------------নির্...
09/07/2013

রোরবার নরসিংদী থেকে খালেদা জিয়ার জনসভা কর্মসূচি শুরু
---------------------------------------------------------------

নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে চলমান আন্দোলনের ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রোববার নরসিংদী যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সেখানে তিনি ১৮ দলীয় জোটের আয়োজনে জনসভায় ভাষণ দেবেন। এর মধ্য দিয়ে বিএনপির ঘোষিত জনসভা কর্মসূচি শুরু হচ্ছে।

প্রায় ২১ বছর পর ঢাকার পার্শ্ববর্তী এ জেলায় বিএনপি-প্রধানের আগমনকে ঘিরে এলাকাজুড়ে বিরাজ করছে সাজ সাজ রব। এ নিয়ে নরসিংদীর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে।

রোববার বেলা ৩টায় ঢাকা সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন নরসিংদী পৌর শিশুপার্কে (বালুর মাঠ) জনসভা শুরু হবে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দিবেন। সবশেষ ১৯৯২ সালে নরসিংদী স্টেডিয়াম মাঠে জনসভা করেছিলেন খালেদা জিয়া।

বিএনপি প্রধানের আগমন উপলক্ষে রং-বেরঙের ব্যানার, পোস্টার আর ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে গোটা নরসিংদী শহর। নেত্রীকে স্বাগত জানাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ২৫ কিলোমিটার জুড়ে তৈরি করা হয়েছে অন্তত পাঁচ হাজার তোরণ। মঞ্চ তৈরিসহ জনসভার মাঠ সাজানোর কাজ চলছে রাত-দিন। সেই সঙ্গে চলছে মাইকিং।

খালেদা জিয়ার নরসিংদীর জনসভার সমন্বয়ক বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান জানিয়েছেন, জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবে। এখান থেকে নির্দলীয় সরকারের দাবিতে নতুন করে আন্দোলন শুরু করবেন খালেদা জিয়া।

নরসিংদীর জেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির নির্বাহী কমিটির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন নতুন বার্তা ডটকমকে বলেন, “জনসভার প্রস্তুতি শেষ। আশা করি দেশবাসী একটি সফল জনসভা দেখবে।”

জনসভায় কয়েক লাখ লোকের সমাগম হবে বলে আশা প্রকাশ করেন খোকন।

ঢাকা, গাজীপুর, মুন্সীগঞ্জ, কাপাসিয়া, কালিগঞ্জ, ঘোড়াশাল, জামালপুর, নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ আসবেন বলেও আশা করছেন জেলা বিএনপি নেতারা।

উল্লেখ্য, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্যে জনমত গঠন ও জোটকে সুসংগঠিত করতে দেড় মাসব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে খালেদা জিয়া নরসিংদী ছাড়াও সাতটি বিভাগীয় শহরে জনসভা করবেন।

নরসিংদীর পর আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর রোববার রংপুর, ১৬ সেপ্টেম্বর সোমবার রাজশাহী, ২২ সেপ্টেম্বর রোববার খুলনা, ২৯ সেপ্টেম্বর রোববার বরিশাল এবং ৫ অক্টোবর শনিবার সিলেটে আয়োজিত জনসভায় বক্তব্য রাখবেন খালেদা জিয়া।

ঈদের পর বন্দরনগরী চট্টগ্রাম এবং রাজধানী ঢাকায় আরো দুটি জনসভা করবেন বিএনপি প্রধান।সেখান থেকে আন্দোলনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করবেন খালেদা জিয়া।

মাহমুদুর রহমানকে কেন জামিন দেয়া হচ্ছে না?-------------------------------------------------গ্রেপ্তারের পর দৈনিক আমার দেশ ...
09/07/2013

মাহমুদুর রহমানকে কেন জামিন দেয়া হচ্ছে না?
-------------------------------------------------

গ্রেপ্তারের পর দৈনিক আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে কেন জামিন দেয়া হচ্ছে না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ও টিভি ব্যক্তিত্ব ড. আসিফ নজরুল।

শনিবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ প্রশ্ন তোলেন।

অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মাহমুদুর রহমান’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আসিফ নজরুল বলেন, ‘আমরা যখন দেশপ্রেম ও আত্ম-মর্যাদাবোধ ভুলে গিয়েছিলাম, তখন মাহমুদুর রহমান সে দেশপ্রেম জাগ্রত করেছিলেন। কিন্তু তাকে কারারুদ্ধ করা হয়েছে।’

‘এখন আর মাহমুদুর রহমানের মুক্তি চাওয়ার দরকার নেই। কারণ আর মাত্র কয়েক মাস পরে তিনি কারো দয়ায় নয়, বীরের বেশে মুক্তি পাবেন। তবে সে জন্য একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি হতে হবে’ যোগ করেন তিনি।

আসিফ নজরুল বলেন, ‘মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ভালো কথা, কিন্তু তাকে কেন জামিন দেয়া হচ্ছে না? কেন তাকে বাইরে রেখে প্রকৃত বিচার হয় না? আসলে সরকার তার প্রকৃত বিচার চায় না। তবে জনগণ যেদিন বিচার করবে, সেদিন যারা তাকে বিনা বিচারে আটক করে রেখেছে তাদের দিকে থুথু ফেলবে।’

তিনি বলেন, ‘গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করে কোনো সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। যারা গণমাধ্যমের কণ্ঠ চেপে ধরে একদিন জনগণও তাদের কণ্ঠ চেপে ধরবে।’

বিশিষ্ট এই টিভি ব্যক্তিত্ব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসেই বিশেষ ক্ষমতা আইন প্রণয়ন করেছিল। এরপর করেছে তথ্য-প্রযুক্তি আইন। তথ্য-প্রযুক্তি আইন জঘন্য ও কুৎসিত।’

এ আইনের বিরুদ্ধে সবাইকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি ক্ষমতায় আসলে আইনটি বাতিলের জন্য বিএনপির প্রতি দাবি জানিয়েছেন আসিফ নজরুল।

ফেলানীর ঘাতক বিএসএফ সদস্যের নির্দোষ প্রমাণ হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দেশপ্রেমিক হিসেবে বিএসএফ নাকি এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তাহলে আমাদের বিজিবিতে কি একজন দেশপ্রেমিকও নেই। বিজিবি এমন কাজ করলে ভারত কী তাদের দেশপ্রেমিক বলবে?’

সেমিনারে যোগ দিতে গ্রেট বৃটেন যাচ্ছেন রফিকুল ও জয়নুল-------------------------------------------------------------সেমিনা...
09/07/2013

সেমিনারে যোগ দিতে গ্রেট বৃটেন যাচ্ছেন রফিকুল ও জয়নুল
-------------------------------------------------------------

সেমিনারে যোগদানের উদ্দেশ্য গ্রেট বৃটেন যাচ্ছেন বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া এবং বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য এ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদিন।
রোববার “বাংলাদেশে সাংবিধানিক সংকট এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকার” শীর্ষক এক সেমিনারে অংশগ্রহণের জন্য গ্রেট বৃটেনের উদ্দেশ্যে নেতা ঢাকা ত্যাগ করবেন এই দুই বিএনপি । দলীয় সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

আওয়ামী লীগ যা করতে চায় তাতে গণতন্ত্রের মৃত্যু ঘটবে------------ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদবিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যার...
09/07/2013

আওয়ামী লীগ যা করতে চায় তাতে গণতন্ত্রের মৃত্যু ঘটবে
------------ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, “যারা বাকশাল কায়েম করতে পারে তারা আর যাই হোক, গণতন্ত্রে বিশ্বাসী হতে পারে না। আজকে একটাই প্রশ্ন, গণতন্ত্র থাকবে কি থাকবে না। আওয়ামী লীগ যা করতে চায় তাতে গণতন্ত্রের মৃত্যু ঘটবে।”

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

প্রাক্তন ছাত্রদল ফাউন্ডেশনের প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটি আলোচনা সভার আয়েজন করে।

মওদুদ বলেন, "দেশে রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টি করছেন আপনারা। সংবিধানের দোহাই দিয়ে পার পাবেন না। একটা কথা মনে রাখতে হবে, জনগণের জন্য সংবিধান, সংবিধানের জন্য জনগণ না।”

‘সংসদ বহাল রেখে আগামী নির্বাচন হবে’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই বক্তব্যের তীব্র সমালোচনাও করেন সাবেক এই আইনমন্ত্রী।

ম্ওদুদ বলেন, "সংসদ বহাল রেখে আরেকটি সংসদ নির্বাচন করার যে স্বপ্ন দেখছেন, তা জনগণের আন্দোলনের মুখে ধূলিস্যাৎ হয়ে যাবে। বাংলার মাটিতে এ ধরনের নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।"

তিনি বলেন, "বাংলাদেশের যেসব রাজনৈতিক দল রয়েছে তারা এক হয়ে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আন্দোলনে নেমে পড়বে। সেই আন্দোলনের মুখে সরকার অচল হয়ে পড়বে।”

হাসিনা ক্ষমতায় গেলে দেশে কিছুই থাকবে না      ----------------------------------------------দেশে যেভাবে লুটপাট হত্যা, খু...
09/07/2013

হাসিনা ক্ষমতায় গেলে দেশে কিছুই থাকবে না
----------------------------------------------

দেশে যেভাবে লুটপাট হত্যা, খুন, গুম শুরু হয়েছে শেখ হাসিনা আবার ক্ষমতায় গেলে দেশে আর কিছুই থাকবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘জিয়া ইয়ুথ ফোরাম আয়োজিত বাংলাদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্রের নায়ক জিয়া ও ভবিষৎ গণতন্ত্র এবং নির্বাচন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, “শেখ হাসিনা ষড়যন্ত্র করছে, তিনি যদি নির্বাচনে হেরে যান তাহলে দেশে যেন গণতন্ত্র ধ্বংস হয়ে যায় তাই সকলকে সজাগ থাকতে হবে গণতন্ত্রকে রক্ষা করার জন্য।”

রফিকুল ইসলাম বলেন, “বর্তমানে নতজানু পররাষ্ট্র নীতি অনুসরণ করছে সরকার, ভারতের যা পাওয়ার তা সবই নিয়ে গেছে কিন্তু আমাদের কিছুই দেয়নি। বিএনপি বিশ্বাস করে বিদেশে আমাদের বন্ধু থাকবে প্রভু থাকবে না।”

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম ওয়াহিদ মজুমদারের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন ও সংসদ সদস্য সৈয়দা আছিয়া আশরাফি পাপিয়া।

-----সরকার নতজানু বলেই ফেলানীদের হত্যা বন্ধ হয় না-------সীমান্তে হত্যা বন্ধে সরকার জোরালো কোনো পদক্ষেপ নেয়নি অভিযোগ কর...
09/07/2013

-----সরকার নতজানু বলেই ফেলানীদের হত্যা বন্ধ হয় না-------

সীমান্তে হত্যা বন্ধে সরকার জোরালো কোনো পদক্ষেপ নেয়নি অভিযোগ করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “সরকারের পক্ষ থেকে কোনো জোরালো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না বলেই সীমান্তে ফেলানীদের হত্যা বন্ধ হচ্ছে না এবং হবেও না। কারণ সরকার সবসময় নতজানু অবস্থায় চলছে।”

শনিবার দুপুরে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে 'অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব)' আয়োজিত ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মাহমুদুর রহমান’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

ফেলানী হত্যা মামলার অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্যদের নির্দোষ ঘোষণার সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, “ভারতের জন্য এটা ঠিকই আছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো এ হত্যা বন্ধে আমাদের সরকার জোরালো কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তাই এটা বন্ধ হচ্ছে না এবং হবেও না। অথচ এটা সম্পূর্ণ বেআইনি।”

তিনি বলেন, “আগে ফিলিস্তিন ও ইসরাইল সীমান্তে এই ধরনের হত্যার ঘটনা ঘটলেও এখন শুধু বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তেই এটা চলছে।”

অ্যাবের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক প্রকৌশলী আ.ন.হ আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএফইউজের মহাসচিব রুহুল আমিন গাজী, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, চলচ্চিত্রকার চাষী নজরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ সেলিম ভুইয়া, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের নেতা মিয়া মো. কাইয়ুম, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খানসহ অনেকে।

সময়মতো জবাব দেবে বিএনপি : জয়নুল আবদিন ফারুকবিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক ক্ষমতাসীনদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘সংবিধান ...
09/07/2013

সময়মতো জবাব দেবে বিএনপি : জয়নুল আবদিন ফারুক

বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক ক্ষমতাসীনদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘সংবিধান থেকে যা বাদ দেয়া হয়েছে, তা আগামী অধিবেশনে সংযোজন করুন। তাহলে আমরা অধিবেশনে যোগ দেব এবং দেশের রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে আপনাদের সাহায্য করব।’

বিএনপি সময়মতো সরকারের সব অত্যাচারের জবাব দেবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিশ্ব শান্তি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘বাংলাদেশে সাম্প্রতিককালের মানবাধিকার লঙ্ঘন ও এর প্রতিকার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড সোসাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, ‘অনেকে আমাদের বলেন, আমরা নাকি ঘুমিয়ে পড়েছি। খালেদা জিয়ার ওপর এতো অত্যাচারের পরও কেন কিছু বলছেন না। তাদের উদ্দেশে আমি বলব, সময়মতো খালেদা জিয়া সব অত্যাচারের জবাব দেবেন।’

তিনি বলেন, ‘যারা বলছেন বিএনপি ট্রেন মিস করছে, তারা খালেদা জিয়াকে চেনেন না। তিনি শান্তির পথের পথিক। আর এজন্য সরকারের সীমাহীন নির্যাতন সহ্য করছেন। তিনি এর বদলে পাল্টা কোনো কর্মসূচি দিয়ে দেশকে অশান্ত করতে চান না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তার বাড়ি কেড়ে নেওয়া হয়েছে, তারেক জিয়ার নামে মিথ্যা মামলা, ছাত্রদল-যুবদল-সেচ্ছাসেবকদলের নেতাকর্মীরা শান্তিতে ঘুমাতে পারছে না, এসব অত্যাচারও তিনি মুখ বুজে সহ্য করেছেন।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনি কথায় কথায় সংবিধানের কথা বলেন। সংবিধানে কী আছে আমরা জানি। আপনারা ক্ষমতায় বহাল থেকে যে নির্বাচন দিতে চান সে নির্বাচনে বিএনপি যাবে না।’

মানবাধিকার প্রসঙ্গে ফারুক বলেন, ‘এ সরকারের আমলে গত সাড়ে চার বছরে কত মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে তার হিসাব আছে। অনেকেই তা জানে। কেউ বলতে পারে, আর কেউ বলতে পারে না। যে বলে তাকেই গ্রেপ্তার করা হয়, অত্যাচার করা হয়।’

অধিকারের প্রধান আদিলুর রহমান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তিনি এমনই এক ব্যক্তি যিনি ৫ মে রাতের ঘটনা প্রকাশ করেছিলেন, যা সরকারের বিরুদ্ধে চলে গিয়েছিল। এ কারণে তাকে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।’

তিনি এ সময় বলেন, ‘আজ দেশে আইনের শাসন থাকলে অবশ্যই শান্তি প্রতিষ্ঠিত হতো।’

হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড সোসাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের সভাপতি মো. রমীজ উদ্দিন রুমীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ড. এম ওসমান ফারুক, সাবেক ছাত্রনেতা মো: রবিউল হোসেন রবি প্রমুখ।

আন্দোলনে সম্পৃক্ত হবে লাখ লাখ জনতা : আব্দুল্লাহ আল নোমান নরসিংদীর জনসভায় লাখ লাখ জনতা সমবেত হয়ে তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুর আন্...
09/07/2013

আন্দোলনে সম্পৃক্ত হবে লাখ লাখ জনতা : আব্দুল্লাহ আল নোমান

নরসিংদীর জনসভায় লাখ লাখ জনতা সমবেত হয়ে তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুর আন্দোলনে যুক্ত হবে বলে মনে করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান।

শনিবার সন্ধ্যায় নরসিংদীতে বেগম খালেদা জিয়ার জনসভাস্থল পরিদর্শন শেষে সমন্বয় কমিটির সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

নরসিংদীতে বেগম খালেদা জিয়ার জনসভার সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা আব্দুল্লাহ আল নোমান বলেন, ‘এ জনসভায় লাখ লাখ জনতা সমবেত হবে। তারা তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আন্দোলনের সাথে সম্পৃক্ত হবে।’

নোমান বলেন, ‘জনগণ হচ্ছে সবচেয়ে বড় শক্তি। তাদের কাছে কোনো প্রকার স্বৈরাচারী ব্যালট-বুলেট টিকতে পারেনি।’

শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সভাপতি খায়রুল কবীর খোকনসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

---------ঢাকা-রামপাল লংমার্চ--------------রামপাল বিদ্যুৎ প্ল্যান্টসহ সুন্দরবন কেন্দ্রিক সব প্রকল্প বাতিলের দাবি জানিয়ে ত...
09/07/2013

---------ঢাকা-রামপাল লংমার্চ--------------

রামপাল বিদ্যুৎ প্ল্যান্টসহ সুন্দরবন কেন্দ্রিক সব প্রকল্প বাতিলের দাবি জানিয়ে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি ঢাকা-রামপাল লংমার্চ পালন করবে।

জাতীয় প্রেসক্লাব, শাহবাগ, সাভার রানা প্লাজা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ধামরাই থেকে লংমার্চের যাত্রা ২৪ সেপ্টেম্বর। লংমার্চ চলকালে বিভিন্ন স্থানে জনসভাও অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমটি হবে মানিকগঞ্জ শহীদ মিনার।

২৫ সেপ্টেম্বর গোয়ালন্দ হয়ে রাজবাড়ী সদরে যাওয়া হবে। ওইদিন ফরিদপুর জনসভা হবে।

২৬ সেপ্টেম্বর মধুখালি, কামারখালি, মাগুরা, ঝিনাইদহ হয়ে কালীগঞ্জ যাওয়া হবে। জনসভা হবে যশোরে।

২৭ সেপ্টেম্বর ফুলতলা, দৌলতপুর হয়ে যাওয়া হবে খালিশপুর। আর জনসভা হবে খুলনায়।

বাগেরহাট হয়ে রামপাল (গৌরম্ভা বাজার, চুলকাঠি) পৌঁছবে ২৮ সেপ্টেম্বর। সেখানেই হবে সমাপনী জনসভা।

পথে পথে প্রতিবাদী গান ও নাটক করা হবে বলে জানিয়েছে জাতীয় কমিটি।

সাত দফা দাবিতে এ লংমার্চ পালন করবে জাতীয় কমিটি। এর মধ্যে আছে সুন্দরবন ধ্বংসকারী রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ, কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের নামে বাজেটের বৃহৎ অংশ লুণ্ঠন বন্ধ, বঙ্গোপসাগরে জাতীয় স্বার্থবিরোধী তেল-গ্যাস অনুসন্ধান চুক্তি বাতিল এবং ফুলবাড়ী চুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়ন, সুন্দরবন এলাকায় জাহাজভাঙা শিল্পের অনুমতি বাতিল।

নেতারা জানান, দেশের জনগণের ও অর্থনীতির জন্য সুলভে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের সব পথ বন্ধ করে সুন্দরবন ধ্বংস করে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র করা হচ্ছে। ভারতীয় কোম্পানি ও দেশি কতিপয় লুটেরার স্বার্থেই দেশের এই ক্ষতি। অন্যদিকে জাহাজ ভাঙা শিল্প করে সুন্দরবনের সর্বনাশ নিশ্চিত করতে যাচ্ছে সরকার।

ঢাকা-রামপাল লংমার্চ কর্মসূচি সফল করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।

Timeline Photos
09/07/2013

Timeline Photos

কথাটা আপনার প্রাণের দাবি হলে LIKE and SHARE দিয়ে জানান............।।
09/06/2013

কথাটা আপনার প্রাণের দাবি হলে LIKE and SHARE দিয়ে জানান............।।

""""""আন্দোলনে প্রকৌশলীদের পাশে চান বেগম খালেদা জিয়া"""""""নির্দলীয় সরকারের দাবি আদায়ে চলমান আন্দোলনে প্রকৌশলীদের শরিক হ...
09/06/2013

""""""আন্দোলনে প্রকৌশলীদের পাশে চান বেগম খালেদা জিয়া"""""""

নির্দলীয় সরকারের দাবি আদায়ে চলমান আন্দোলনে প্রকৌশলীদের শরিক হওয়ার আহ্বান জানালেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া।

নির্দলীয় সরকারের দাবি জোরালো করতে বিভিন্ন পেশাজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের অংশ হিসেবে বিএনপি সমর্থিত বিভিন্ন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাচিত শিক্ষক সমিতির একটি প্রতিনিধি দল ও জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ আহ্বান জানান বলে বৈঠক সূত্রে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার রাতে তার গুলশানের কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, ড. আব্দুল মঈন খান।

প্রকৌশলীদের মধ্যে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার বাংলাদেশের (এ্যাব) ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক প্রকৌশলী আ ন হ আক্তার হোসেন, ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজু, সাবেক ভিসি (ডুয়েট) প্রকৌশলী ড. আনোয়ারুল আজীম, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রকৌশলী ড. শাহ মো. ফারুক, প্রকৌশলী ফজলে এলাহী, প্রকৌশলী মহসিন আলী, প্রকৌশলী মিয়া মো. কাউয়ূম, প্রকৌশলী শাহ খালেদ মাহমুদ চৌধুরী ফাহিন প্রমুখ।

মতবিনিময়ের অংশ হিসেবে আগামী শনিবার বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারের শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন বেগম খালেদা জিয়া।

উল্লেখ্য, বেগম জিয়া গত মঙ্গলবার জাতীয়তাবাদী সমর্থিত সিনিয়র চিকিৎসক এবং বুধবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দলেরর সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

"""""""প্রধানমন্ত্রীকেই দেশের সংকট নিরসন করতে হবে''''''''''''''বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিঞ...
09/06/2013

"""""""প্রধানমন্ত্রীকেই দেশের সংকট নিরসন করতে হবে''''''''''''''

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিঞা বলেছেন, দেশে আইনের নয়- চলছে শেখ হাসিনার শাসন। সংবিধান লঙ্ঘন করে দেশে সংকট সৃষ্টি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তাকেই এ সংকট নিরসন করতে হবে।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু, হলমার্ক, বেসিক ব্যাংক, রেলের কালো বিড়াল, শেয়ার বাজার কেলেঙ্কারিসহ সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতিতে দেশের মানুষ এ সরকারের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। তাই আগামী নির্বাচনে নিশ্চিত ভরাডুবির কথা চিন্তা করে প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রী-এমপিরা ক্ষমতায় থেকে নির্বাচন করার স্বপ্ন দেখছেন। কিন্তু দেশের মানুষ সরকারের এ স্বপ্ন কোনোদিন পূরণ হতে দেবে না।

'''''''''''''''''''''''''''ঈদের পর সরকার পতন আন্দোলন''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''সংবিধানকে দলীয় সংবিধান বা...
09/06/2013

'''''''''''''''''''''''''''ঈদের পর সরকার পতন আন্দোলন''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''

সংবিধানকে দলীয় সংবিধান বানানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে সরকার, তত্ত্ববধায়ক সরকারের দাবি মেনে না নিলে ঈদের পর সরকার পতনের আন্দোলন আরো জোরদার করা হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুলাহ আল নোমান।

তিনি বলেন, "সংবিধানকে দলীয় সংবিধান বানানোর ষড়যন্ত্র করছে সরকার। এখনো সময় আছে তত্ত্বাবধায়ক বা নির্দলীয় যে নামেই হোক না কেন সংবিধান সংশোধন করে নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। নতুবা দেশে কোনো নির্বাচন হবে না। বিএনপি ও ১৮ দলীয় জোট তা হতে দেবে না।"

শুক্রবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ১৮ দলীয় জোটের মহাসচিব পর্যায়ের বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

বৈঠকে সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতির মূল্যায়ন ও আন্দোলন কর্মসূচির রূপরেখা নিয়েও আলোচনা হয়।

নোমান বলেন, "ঈদের পর সরকার পতন আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পরব। আটটি জনসভা থেকে সেই প্রস্তুতি নেওয়া হবে। জনসভার জনসমাগম দেখে সরকার নির্দলীয় সরকার দিতে বাধ্য হবে। আন্দোলন যেমন নির্বাচনের অংশ তেমনি নির্বাচনও আন্দোলনের অংশ। তাই ঈদের পর চলমান আন্দোলনকে তীব্রতর করে ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন ঘটানো হবে।"

দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের জন্য সরকার যে অপচেষ্টা চালাচ্ছে আন্দোলনের মাধ্যমে সে প্রচেষ্টার বিষদাত ভেঙে দেওয়ার কথা বলেন তিনি।

হেফাজতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেওয়া বক্তব্যকে তিনি সরকারের সাফাই গাওয়া বলে মন্তব্য করেন। সেই সঙ্গে হেফাজত নেতা মুফতি ওক্কাসের মুক্তি দাবি জানান।

বৈঠকে আগামী ৮ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার নরসিংদী জনসভাকে সফল করতে ১৮ দলীয় জোটের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করা হয়। ১৮ দলীয় জোটের মহাসচিবরাও বেঠকে অংশ নেন।

বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন ড. রেদওয়ান আহমেদ, আমিনুর রহমান, ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, গোলাম মোর্তুজা, খন্দকার লুৎফর রহমান, এম এ রশিদ প্রধান, মুফতি রেজাউল করীম, শেখ জুলফিকার চৌধুরী।

'''''''''''''''''''ফেলানী হত্যায় অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্য খালাস''''''''''''''''''''''''বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বিএসএফ-এর গু...
09/06/2013

'''''''''''''''''''ফেলানী হত্যায় অভিযুক্ত বিএসএফ সদস্য খালাস''''''''''''''''''''''''

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বিএসএফ-এর গুলিতে নিহত বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানী হত্যা মামলায় অভিযুক্ত অমিয় ঘোষকে নির্দোষ বলে রায় দিয়েছে বিএসএফ-এর নিজস্ব আদালত। রায়ের পরে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার ভারতের কুচবিহার ১৮১ বিএসএফ সদর দপ্তরে বিশেষ আদালত এ রায় ঘোষণা করে।

অমিয় ঘোষ বিএসএফের ১৮১ নম্বর ব্যাটালিয়নের কনস্টেবল। বিএসএফ-এর সূত্রগুলো এই খবর নিশ্চিত করেছে। তবে তাদের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

সেনাবাহিনীর কোর্টমার্শালের সমতুল্য বিএসএফ-এর নিজস্ব আদালত জেনারেল সিকিউরিটি ফোর্সেস কোর্ট তাদের বিচার শেষ করেছে বৃহস্পতিবার। এই রায়টি চূড়ান্ত ছাড়পত্রের জন্য বাহিনীর মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো হবে।

আগস্টের ১৩ তারিখ থেকে ভারতের কোচবিহার জেলায় সোনারি বিএসএফ ছাউনিতে বহুল সমালোচিত ফেলানি হত্যা মামলার বিচার চলছিল। মোট পাঁচজন বিচারক গোটা বিচার প্রক্রিয়া চালান, আর কোর্ট পরিচালনা করেন বিএসএফ-এর গুয়াহাটি ফ্রন্টিয়ারের ডিআইজি কমিউনিকেশনস সি পি ত্রিবেদী।

২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার অন্তর্গত চৌধুরীহাট সীমান্ত চৌকির কাছে কাঁটাতারের বেড়া পেরোনোর সময় কনস্টেবল অমিয় ঘোষের গুলিতে মারা যান বাংলাদেশি তরুণী ফেলানি। দীর্ঘক্ষণ তাঁর দেহ কাঁটাতারের বেড়ার ওপরেই ঝুলে ছিল।

অমিয় ঘোষের বিরুদ্ধে ভারতীয় দ-বিধির ৩০৪ ধারায় অনিচ্ছাকৃত খুন এবং বিএসএফ আইনের ১৪৬ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছিল। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর কূটনৈতিক ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশনের চাপে দীর্ঘ আড়াই বছর পর ফেলানি হত্যার বিচার শুরু হয়। এ মামলায় ফেলানীর বাবা ও মামা বাংলাদেশ থেকে ভারতে গিয়ে সাক্ষ্য দিয়েছেন। সাক্ষ্য দিয়ে দেশে ফেরার পর ফেলানীর বাবা সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছিলেন, তিনি আসামি অমিয় ঘোষকে চিনতে পেরেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করেছিলেন তার মেয়ে হত্যার চূড়ান্ত বিচার পাবেন।

Address

New York, NY
03007

Alerts

Be the first to know and let us send you an email when BNP Newsdesk posts news and promotions. Your email address will not be used for any other purpose, and you can unsubscribe at any time.

Shortcuts

Category

Nearby media companies


Other Newspapers in New York

Show All

Comments

#ঐ বাঙালি জাগো আর ঘুমাইওনা 16 কোটি মানুষ।বিএনপি ধানের শীষে ভোট দিন।দেশের শানতি ফিরিয়ে আনুন#